বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১০:১১ পূর্বাহ্ন

চিতলমারীতে গ্রাম পুলিশের লালসার বলি না হওয়ায় নানা হয়রানির শিকার সংবাদকর্মী

বিশেষ প্রতিনিধি:

বাগেরহাটের চিতলমারীতে দড়িউমাজুড়ি গ্রামে সাংবাদিক রনিকা বসু মাধুরী তার সহযোগি তাসনিম ইসলাম মাহি কে কু-প্রস্তাব দেয়ার প্রতিবাদে মনোজ বসু (৩৮) নামের এক গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট গত ২৮ জানুয়ারি একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযুক্ত মনোজ বসু সন্তোষপুর ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রনিকা দীর্ঘদিন যাবত দু’টি জাতীয় দৈনিক ও কয়েকটি অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ পরিবেশন করে আসছে। সেইসাথে তার সহযোগি তাসনিম ইসলাম মাহি তার আশ্রয়ে থেকে সাংবাদিকতা করে। তাদের বস্ত্তনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনে ঈর্ষান্বিত হয়ে বিভিন্ন সময় গ্রাম পুলিশ মনোজ বসু রাস্তাঘাটে তাদের চলার গতি রোধ করে কুপ্রস্তাব দেয়াসহ নানা ভাবে হয়রানী করে আসছে। ওই সকল প্রস্তাবে তারা রাজী না হওয়ায় গত ২৭ জানুয়ারি রনিকা বাড়ীতে না থাকার সুযোগে মনোজ বসু তার দলবল নিয়ে তার পিতার বসতঘরে হামলা চালায়। হামলায় রনিকার বৃদ্ধ পিতা বিমল বসু (৭০), বৃদ্ধা মাতা প্রিয়া বসু (৬৫), ছোট ভাই তন্ময় বসু (২৫), ভাইয়ের স্ত্রী অর্পণা বসু (২২) ও এক বছরের কোলের শিশুসহ ৫ জন আহত হয়।উক্ত গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে প্রতিকার চেয়ে রনিকা বসু উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর সুবিচারের জন্য একটি অভিযোগ করেন। এ ব্যপারে মনোজ বসু মুঠোফোনে জানায়, সে আমার নামে যে অভিযোগ করেছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে আলাপ হলে তিনি জানান, অভিযোগ হয়েছে, বিষয়টি আমি দেখবো।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com