রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৩২ অপরাহ্ন

শিরোনাম
গাংনীর কল্যাণপুরে সংঘর্ষে ১০ জন আহত চুয়াডাঙ্গায় হাত-মুখ বাঁধা বয়স্ক স্বামী-স্ত্রীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার চুয়াডাঙ্গায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে মিনা দিবস উদযাপন ‘যাও পাখি বলো তারে’ সিনেমার টাইটেল গান প্রকাশ (ভিডিও) রিমোট দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে জীবন্ত তেলাপোকা! নতুন প্রযুক্তি আবিষ্কারের দাবি বিজ্ঞানীদের ছাপা কাগজে খাবার পরিবেশন বন্ধের নির্দেশ বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে আরাকান আর্মি ও মিয়ানমারের সেনাদের গুলি বিনিময় সরকারের পতন ঘটিয়ে শাওন হত্যার জবাব দিব: মির্জা ফখরুল মদপান স্বাস্থ্যের জন্য ভাল, মন্তব্য ভারতের সুপ্রিম কোর্টের! আগামীকাল শনিবার মীনা দিবস, দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি

চুয়াডাঙ্গায় রোকসানা খাতুন ফিরে পেলেন তার সুখের সংসার

ষ্টাফ রিপোর্টার:

নারী নির্যাতন প্রতিরোধে দরকার মানসিকতার পরিবর্তন ও সচেতনতা। এ লক্ষ্যে পুলিশী নিয়মিত কাজের বাহিরেও চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম ঐকান্তিক চেষ্টায় চলছে “উইমেন সাপোর্ট সেন্টার” এর কার্যক্রমের উপর বিশেষ দেখভাল। চুয়াডাঙ্গা পুলিশ নির্যাতিত নারী ও শিশুদের সুরক্ষার জন্য উইমেন সাপোর্ট সেন্টারসহ বিভিন্ন মাধ্যমে সেবা দিয়ে চলছে।
এমতাবস্থায় রোকসানা খাতুন তার ০৩টি সন্তান ও নিজের অসহায়ত্ব থেকে রক্ষা পেতে পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ সুপার উক্ত অভিযোগটির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তার কার্যালয়ে অবস্থিত “উইমেন সাপোর্ট সেন্টার”কে দায়িত্ব দেন। “উইমেন সাপোর্ট সেন্টার” উভয় পক্ষকে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে হাজির করেন। পুলিশ সুপার, জাহিদুল ইসলাম এর প্রত্যক্ষ মধ্যস্থতায় শরিফুল ইসলাম তার স্ত্রী রোকসানা খাতুন’কে পুনরায় নিজ বাড়ীতে ফিরিয়ে নিয়ে সংসার করতে সম্মত হয়। ফলে পুলিশ সুপার’র হস্তক্ষেপে খাদিজা, আয়েশা ও আব্দুল্লাহ ফিরে পেল তার বাবার আদর স্নেহ। অন্য দিকে রোকসানা খাতুন ফিরে পেল তার সুখের সংসার।
উল্লেখিত, দামুড়হুদার পুরাতন বাস্তপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে শরিফুল ইসলাম (৪৫)’র ২০ বছর পূর্বে ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক বিয়ে হয় রোকসানা খাতুনের। তাদের সংসার জীবনে ২ মেয়ে খাদিজা খাতুন (১৩), আয়েশা আক্তার (০৬) ও ১ ছেলে আব্দুল্লাহ নামের ফুটফুটে তিনটি সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময়ে শরিফুল ইসলাম যৌতুকের জন্য তার স্ত্রীকে চাপ দিতে থাকে। ফলে তাদের মধ্যে প্রায়ই বিরোধ দেখা দেয়। সংসারে চলমান বিরোধ এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে, ৩ জানুয়ারী শরিফুল ইসলাম তার স্ত্রীকে দুই লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবীতে মারপিট করে পিতার বাড়ীতে তাড়িয়ে দেয় এবং টাকা না দিলে তালাক দিবে মর্মে হুমকী দেয়।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com