বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

সিএনজি চালক ছিনতাইকারী আফসার এখন পলাতক

বিশেষ প্রতিনিধিঃ কাকলি বনানীর সৈনিক ক্লাব থেকে  গত ২৭ মে শুক্রবার রাত পৌনে ১১টার দিকে  শেখ মাহমুদুল হাসান পারভেজ (৩২) নামে এক ব্যক্তির ব্যাগ ছিনতাই হয়। ব্যাগে নগদ এক লক্ষ আশি হাজার টাকা, ন্যাশনাল আইডি কার্ড- ৬৪৫ ২৩৯ ৩৪৯৬, ওয়ালটন মোবাইল নং- ০১৬১১-৩৫৮৫৭৩, এবং অফিসের জরুরী কাগজপত্র ছিলো।

গত ২৯  মে বনানী থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। জিডি নং-১৫৯৪। এক পর্যায়ে দেখা যায় পুলিশ ছিনতাইকারীর বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ায় শেখ মাহমুদুল হাসান পারভেজ নিজেই নেমে পড়েন এর সন্ধানে। বন্ধুদের এবং সাংবাদিক ভাইদের সহযোগিতায় এক পর্যায়ে দেখা যায় তার মোবাইলটি গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া থানার রায়েত বাজারের ৯নং ওয়ার্ড এর সিএনজি চালক আফসার (৩৭) পিতাঃ অজ্ঞাত, সন্ধান পাওয়া যায়। সিএনজি চালক আফসারের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে সে অনেক হুমকী-ধামকী দিয়ে এক পর্যায়ে মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে দেয়। আফসার ছিনতাইকারীর মেইন হোতা এখন পলাতক অবস্থায় আছে, এবং তার সাথে তার বাসার লোকজন তার মা এবং বাবাও জড়িত আছে বলে একটি সূত্রে জানা  গেছে। আফসারের বাবা কাগজপত্র টাকা পয়সা দিয়ে দিবে বলে স্বীকারও করে। আফসারের বাবার কথা বলার সেই ফোন রেকর্ডও সংরক্ষিত আছে।

এদিকে, জহিরুল ইসলাম নামে এক ভদ্রলোক মীমাংসার কথা বলে ফোন দেয়। এখন সেই জহিরুল ইসলাম নানান ধরনের তাল বাহানা করছে। আফসার ও জহিরুল ইসলাম এবং আফসারের বাবার কথার ফোন রেকর্ডও আছে। এই ছিনতাই করি চক্রকে আইনের আওতায় আনার জন্য আফসারের বাবা এবং মাকে গ্রেফতার করার দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগী শেখ মাহমুদুল হাসান পারভেজ। পুলিশ প্রশাসনের সাহায্য নিয়ে আফসার এবং তার সহযোগীদের গ্রেফতার করার জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছেন বলে পুলিশ সূত্রে জানা  গেছে।

 

সুজন মাহমুদ/আমাদের চুয়াডাঙ্গা

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com