বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

কাজ শেষ হতে না হতেই নওগাঁ-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়কে আবারও ফাটল

আত্রাই (নওগাঁ) সংবাদদাতা : নওগাঁ-আত্রাই-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়কের নির্মাণ কাজ শেষ হতে না হতেই আবারও ফাটল ধরেছে। এ সড়কের আত্রাই উপজেলার শাহাগোলা ব্রিজ সংলগ্ন স্থানে প্রটেকশন ওয়ালে ফাটল ধরায় জনমনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। গত জুন মাসে বর্তমান ফাটল স্থান থেকে মাত্র ৩০০ গজ দূরে এ সড়ক ধসে গিয়েছিল। সেখানকার সংস্কার কাজ এখনো চলমান। দুই মাসের ব্যবধানে আবারও সড়কটিতে ফাটল ধরায় জনমনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

উল্লেখ্য- ২০০১সালে জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর এই সড়কটি নির্মাণ কাজের জন্য তৎকালীন চারদলীয় জোট সরকারের নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সংসদ সদস্য এবং গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী আলমগীর কবির এ সড়কটি নির্মাণের উদ্যোগ নেন। সে অনুযায়ী ওই সময় তিনি নওগাঁর ঢাকা রোড নামক স্থানে নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। সেই মোতাবেক কিছু কাজ শুরু হলেও রাজনৈতিক নানা জটিলতার কারণে তা ফাইলবন্দী হয়ে পড়ে থাকে। এরপর ঢাকা রোড থেকে রাণীনগর রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত ৮কিলোমিটার সড়কের কাজ অনেক আগেই পাকাকরন করা হয়। পরে অনেক জটিলতা কাটিয়ে নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের প্রয়াত সাংসদ ইসরাফিল আলম ২০১৮সালে পুন:রায় রাণীনগর রেলওয়ে ষ্টেশন থেকে আত্রাই হয়ে নাটোর জেলার সীমানা পর্যন্ত অঞ্চলিক মহাসড়কের নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এরপর থেকে এই সড়কের নির্মাণ কাজ এলাকাবাসীর কাছে অনেকটাই দৃশ্যমান হয়।

এদিকে এ সড়কের নির্মাণ কাজ শেষ হতে না হতেই উদ্বোধনের আগেই আত্রাই উপজেলার শাহাগোলা রেল স্টেশনের উত্তর দিকে মহাসড়কটির প্রায় ১৫০-২০০ফুট রাস্তা গত ২৫জুন বিকেলে হঠাৎ করেই দেবে যায়। এতে করে মহাসড়কটির মাঝে বড় ধরনের ফাটলের সৃষ্টি হয়। সড়কের বেশির ভাগ অংশ দেবে যাওয়ায় সড়ক দিয়ে যান চলাচল ব্যাহত হয়। পরে নওগাঁ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্দেশনায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সংস্কার কাজ শুরু করে। যা বর্তমান চলমান রয়েছে।

এদিকে আঞ্চলিক মহাসড়কের ধসে যাওয়া স্থানের সংস্কার কাজ শেষ না হতেই ওই স্থান থেকে প্রায় ৩০০ গজ দক্ষিণে আবারও ফাটল দেখা দিয়েছে এ সড়কে। গতকাল সোমবার সকালে স্থানীয় লোকজন এ ফাটল দেখতে পান। সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে শত শত লোক সেখানে ভীড় জমায়। দ্রুত এটি সংস্কারের ব্যবস্থা না নিলে পুরো সড়ক ধসে যোগযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
এদিকে সংবাদ পেয়ে আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইকতেখারুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

তিনি বলেন, কেন এ সড়কের ওই এলাকাতে এমন ঘটনা ঘটছে তা তদন্তের জন্য নওগাঁ সড়ক ও জনপথ বিভাগকে বলা হয়েছে। নওগাঁ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান সাজিদ বলেন, আঞ্চলিক মহাসড়কের ওই স্থানসহ পুরো এলাকা আমাদের পর্যবেক্ষণে রয়েছে। কেন এভাবে ফাটল ধরছে বা দেবে যাচ্ছে তা নির্ণয়ে ঢাকা থেকে বিশেষজ্ঞ দলও এসেছিলেন। নতুন করে আবারও সড়কে ফাটল ধরেছে কেন তা পর্যবেক্ষণ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

রুহুল আমিন/আমাদের চুয়াডাঙ্গা/এ.এইচ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com