বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন

পীরগঞ্জে নারী ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে গৃহবধূর চুল কেটে নির্যাতনের অভিযোগ

 

সাইমন হোসেন, ঠাকুরগাঁও

ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার এক মহিলা ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে মারপিট ও চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল (১৫ জুন) বুধবার বিকেলে ভুক্তভোগী ওই নারী গৃহবধূ শর বানু (৪৫) পীরগঞ্জ উপজেলার বৈরচুনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তেলিনা সরকার হিমু বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন।

এ ঘটনায় বুধবার বিকেলে পীরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তোভোগীর স্বামী হাছান আলী।

নির্যাতনের স্বীকার ওই গৃবধূর জানান, গত রোববার (১২জুন) রাত ১০টায় স্থানীয় ফারুক ও রুবলে সহ বেশ কয়েকজন চেয়ারম্যান আমাকে ডেকেছে, আমার নামে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ ও সালিশের কথা বাসা থেকে নিয়ে যায়। পরে চেয়ারম্যান হিমু সহ তার কয়েকজন ছেলে আমাকে মারধর করে।

তিনি আরো জানান, নির্যাতনের পর ওই চেয়ারম্যান স্টাম্পের উপর আমার কাছে সাক্ষর নেয় এবং আমার মাথার চুল কেটে দেয়। পরে এই ঘটনার কাউকে যাতে না জানাই সেজন্য হুমকি দেয়।

ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূর স্বামী হাছান আলী জানান , কোন অপরাধ ছাড়াই আমার স্ত্রীকে চেয়ারম্যান সহ তার ছেলেরা মারপিট করে মাথার চুল কেটে দিয়েছে। আমি বাসায় ছিলাম না এই সুযোগে তারা আমার স্ত্রীকে রাতে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে গেছে। কি কারনে তারা আমার স্ত্রীকে মারপিট করলো তা আমি জানি না। পরে আমরা বাসায় আসলে তারা আমাদের বাসা থেকে বের হতে দেয়না। বিভিন্ন ধরনের ভয় দেখায়। আজ আমার স্ত্রী বেশি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি। আমি এর সঠিক বিচার চাই।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান তেলিনা সরকার হিমু জানান, যখন আমি ঘটনাস্থলে যাই তখন চুল কাটা বা নির্যাতনের কোন কিছু আমি দেখতে পাই নি। এটা সম্পূর্ণ ষড়যন্ত্রমূলক বানোয়াট কথা।

পীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, এ ঘটনা গৃহবধূর স্বামী থানায় একটি মামলা দ্বায়ের করেছে। অভিযোগ তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com