বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০৩:৫৬ পূর্বাহ্ন

প্রসূতির পেটে গজ রেখে সেলাই, সেই চিকিৎসককে অব্যাহতি

বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রসূতির অস্ত্রোপচারের সময় পেটে গজ রেখে সেলাই করা হয়েছিল। এ ঘটনায় দা‌য়ি‌ত্বে অব‌হেলার দায়ে এক অনারারি মেডিকেল অফিসারকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

একই সঙ্গে অস্ত্রোপচারের সময় উপস্থিত থাকা হাসপাতালের দু’জন স্টাফ নার্সকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে অবহিত করেছেন হাসপাতাল পরিচালক।

রোববার (১২ জুন) সন্ধ্যায় শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, অব্যাহতিপ্রাপ্ত চি‌কিৎসক মো. তা‌হের এবং দুই স্টাফ নার্স সুমী সরকার ও মিঠু রানী দাসকে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানো নোটিশের উত্তর দিতে বলা হয়েছে। এই ঘটনায় ২২ মে হাসপাতা‌লের সার্জারি বিভা‌গের প্রধান ডা. না‌জিমুল হক‌কে প্রধান ক‌রে গাইনি বিভা‌গের প্রধান খুরশীদ জাহান ও হাসপাতা‌লের সহকা‌রী প‌রিচালক ডা. ম‌নিরুজ্জামান শাহীনকে নি‌য়ে ৩ সদ‌স্যের তদন্ত ক‌মি‌টি গঠন করা হয়। ১১ জুন বিকেলে তদন্ত ক‌মি‌টি প্রতি‌বেদন জমা দি‌লে অনারারি মেডিকেল অফিসার মো. তাহের‌কে অব‌্যাহ‌তি দেওয়া হয়। তিনি এমবিবিএস পাস করে হাসপাতালের গাইনি বিভাগে ছয়মাসের প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ১৬ এপ্রিল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এক কন্যাসন্তান জন্ম দেন ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার জিয়াউল হাসা‌নের স্ত্রী শারমিন আক্তার শীলা। অস্ত্রোপচারের পর তার পেটে গজ রেখেই সেলাই করেন চিকিৎসক। সুস্থ হয়ে শারমিন বাড়ি ফেরার কিছুদিন পর থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। ধীরে ধীরে সেখানে পচন ধরে ক্ষতের সৃষ্টি হয় এবং শারমিন ব্যথা অনুভব করে।

বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানালে তাকে পুনরায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের প্রধান ডা. নাজিমুল হক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে শারমিনের পেটে গজের অস্তিত্ব পান। পরে ২২ মে পুনরায় অস্ত্রোপচার করে গজ অপসারণ করা হয়।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com