বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০৩:২৯ পূর্বাহ্ন

অভিষেকেই আইপিএল চ্যাম্পিয়ন পান্ডিয়ার গুজরাট

শেষ হল দীর্ঘ দুই মাসের জমজমাট টুর্ণামেন্ট আইপিএল। এ বারের আসরে দুই অভিষেক দলের একটি ছিল গুজরাট টাইটানস। সেই গুজরাটই বাজিমাত করল এবারের আইপিএলে। গতকাল রোববার রাজস্থান রয়্যালসকে ৭ উইকেটে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পান্ডিয়ার গুজরাট টাইটানস।

আইপিএলের ১৫তম আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হল। যেখানে রাজস্থানের দেয়া ১৩১ রানের সহজ লক্ষ্য গুজরাট টপকে যায় ৭ উইকেট এবং ১১ বল হাতে রেখেই। টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারে নি অভিষেক আইপিএল চ্যাম্পিয়ন রাজস্থান রয়্যালস।

আহমেদাবাদে রোববার রাজস্থানের ব্যাটারদের ক্রিজে স্থায়ী হওয়ার কোনো সুযোগই দেন নি গুজরাট অধিনায়ক পান্ডিয়া। চার ওভার বল করে মাত্র ১৭ রান দিয়ে স্বীকার করেছেন ৩টি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট। রাজস্থানের হয়ে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৩৯ রানের ইনিংস খেলেন বাটলার। তার ৩৫ বলের ইনিংসটিতে ছিল ৫টি বাউন্ডারী।

রাজস্থানের দুই ওপেনার বাটলার ও জয়সওয়াল ভালো শুরু এনে দিতে পারে নি। প্রথম থেকেই ধীর গতিতে ব্যাট করতে থাকেন এবারের আসরের সেরা ব্যাটসম্যান বাটলার। এতেই সুযোগের সৎ ব্যবহার করেন গুজরাট অধিনায়ক পান্ডিয়া।

ইনিংসের চতুর্থ ওভারে এসে যশ দয়াল জসওয়ালকে সাজঘরে ফেরান পান্ডিয়া। এরপর রাজস্থান অধিনায়ক স্যামসনের উইকেটও তুলে নেন পান্ডিয়া। তাকে ফেরান ১৪ রানে। আর পান্ডিয়ার তৃতীয় স্বীকার ছিল রাজস্থানের ক্যারিবীয় ব্যাটার হেটমায়ার। ১২ বলে ১১ রানে নিজের বলে নিজেই ক্যাচ ধরে প্যাভিলিয়নে ফেরান তাকে।

শেষ পর্যন্ত কেউ ভালো ইনিংস খেলতে না পারায় নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৩০ রানে থামে ২০০৮ সালের চ্যাম্পিয়নদের ইনিংস। গুজরাটের হয়ে পান্ডিয়া ৩ উইকেট ছাড়াও রবিশ্রীনিবাসন সাই কিশোর নেন ২ উইকেট এবং শামি, দয়াল ও রশিদ খান নেন একটি করে উইকেট।

জবাবে শুরুতে ঋদ্ধিমান সাহার উইকেট হারালেও সুবহাম গিলের ৪৩ বলে ৪৫, অধিনায়ক পান্ডিয়ার ৩০ বলে ৩৪ এবং মিলারের ঝড়ো ১৯ বলে ৩২ রানের ইনিংসের ওপর ভর করে ৭ উইকেট ও ১১ বল হাতে রেখেই শিরোপা জিতে নেয় গুজরাট টাইটানস। রাজস্থানের হয়ে একটি করে উইকেট নেন বোল্ট, কৃষ্ণ এবং চাহাল।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com