বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন

চুয়াডাঙ্গায় এবার ভূয়া চক্ষু ডাক্তারকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত, চক্ষু ক্লিনিক সাময়িক বন্ধ

চুয়াডাঙ্গায় অবৈধভাবে চোখের চিকিৎসা দেওয়ার অভিযোগে সামসুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও তার চক্ষু চিকিৎসার ক্লিনিক সাময়িক বন্ধ করে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত ।
আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টায় চুয়াডাঙ্গা সিনেমা হলপাড়ায় অবস্থিত চক্ষু সেবা কেন্দ্রে
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম ভূঁইয়ার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয় । সেখানে গিয়ে দেখা যায় ভারত থেকে প্রাপ্ত কথিত অল্টারনেটিভ মেডিসিন ডিগ্রীধারি সামসুর রহমান রোগীদের জটিল চোখের রোগের চিকিৎসা করছেন । দীর্ঘদিন ধরে বেআইনিভাবে নিজের নামের পূর্বে ব্যবহার করে আসছেন ডাক্তার পদবী । চিকিৎসা সেবা প্রদানের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখতে চাইলে তা ভ্রাম্যমান আদালতকে দেখাতে ব্যর্থ হন সামসুর রহমান । পরে দোষ স্বীকার করলে তাকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪৪ ধারায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা সেই সাথে উক্ত প্রতিষ্ঠান সাময়িক বন্ধ করে দেওয়া হয় । অভিযুক্ত সামসুর রহমান বছর পাঁচেক আগে একবার ভ্রাম্যমান আদালতে একই অপরাধে দন্ডিত হয়ে জেল হাজতে গিয়েছিলেন।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মাজহারুল ইসলাম।
এসময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. তারেক জুনায়েত।
নিরাপত্তার দ্বায়িত্ব ছিলো সদর থানা পুলিশের একটি টিম।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com