মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন

চুয়াডাঙ্গায় বখাটের উত্যক্ত সহ্য করতে না পেরে মাদ্রাসাছাত্রীর আত্মহত্যা

চুয়াডাঙ্গায় বখাটের উত্যক্ত সহ্য করতে না পেরে মাছুমা আক্তার নামের এক মাদ্রসাছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। রোববার (২২ মার্চ) বেলা ৪টার দিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার হকপাড়ায় ঘটে ওই ঘটনা। মৃত্যুর আগে নিজের হাতে ৪ পৃষ্ঠার একটি চিরকুটও লিখে রেখে যায় মাসুমা (কারণবসত চিরকুটের লেখাটি প্রকাশ করা হলো না)।

নিহত মাসুমা আক্তার (১৭) একই এলাকার আমিনুল ইসলামের মেয়ে। মাদ্রাসা ছাত্রী মাসুমা রেলবাজার আলিয়া মাদ্রাসার প্রথমবর্ষের ছাত্রী ছিলো। তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় মাছুমা আক্তারের পিতা বাদী হয়ে রোববার রাতইে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, চুয়াডাঙ্গা শহরের আরামপাড়ার মোবারক হোসেন মুবার ছেলে আবুল কালাম প্রায়ই মাসুমাকে উত্যক্ত করতো। গত শুক্রবার সকালে রেলষ্টেশন সংলগ্ন তার বাবার চায়ের দোকান পরিস্কার করতে যায় মাছুমা। সেখানে একা পেয়ে বখাটে যুবক কালাম তাকে উত্ত্যক্ত করা শুরু করে। একপর্যায়ে তাকে মারধরও করে কালাম। পরে, বাড়ী এসে বিষয়টি পরিবারকে জানায় মাসুমা। বিষয়টি নিয়ে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সালিসে বসার কথা থাকলেও গত দুই দিনেও বসেন নি তারা। রোববার বিকেলে বাড়ীতে কেউ না থাকায় ঘরের আড়ার সাথে ওড়না বেঁধে গলায় ফাঁস দেয় মাসুমা। বিকেলে আমিনুল ইসলাম বাড়ীতে ফিরে মাছুমাকে না পেয়ে জানালা দিয়ে ঘরে উকি দিলে ঘরের আড়ার সাথে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে। পরে, তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বাড়ীতেই সেবা শুরু করে। অবস্থার অবনতি হলে মামুমাকে সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর মৃত ঘোষণা করেন।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, মৃত্যুর আগে মাসুমা ৪ পৃষ্ঠার একটা চিরকুট লিখে গেছেন।

সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. উৎপলা বিশ্বাস জানান, হাসপাতালে নেয়ার আগেই মারা গেছে মাসুমা আক্তার।

এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসীন জানান, এ ঘটনায় নিহতের বাবা আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে অভিযুক্ত কালামের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। আসামীকে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। নিহত মাদ্রাসাছাত্রীর মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 dailyamaderchuadanga.com