বুধবার, ০৬ Jul ২০২২, ০৩:১০ পূর্বাহ্ন

মাদ্রাসার ভেতর হেফজ শিক্ষার্থীর গলাকাটা লাশ

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার চরণদ্বীপ ইউনিয়নে আল্লামা শাহ অছিয়র রহমান হেফজখানার এক ছাত্রকে গলা কেটে খুন করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের জন্য হেফজখানার এক শিক্ষককে দায়ী করছেন স্থানীয়রা।

শনিবার (৫ মার্চ) সকাল ৯টার দিকে হেফজ খানার দ্বিতীয় তলার স্টোর রুম থেকে ওই ছাত্রের মরদেহ পুলিশ উদ্ধার করে।
নিহত মাদ্রাসা শিক্ষার্থী ইফতেখার মালেকুল মুশফি (৯) চরণদ্বীপের ফকিরাখালীর বকসু মিয়ার বাড়ির আব্দুল মালেকের ছেলে।

মাদ্রাসার পরিচালক শাহজাদা শেখ মো. সালাউল্লাহ জানান, সকালে মাশফি সবার সঙ্গে নামাজ পড়েছে। এরপর ছবকও নিয়েছে। ৭টার দিকে নাস্তা করতে গেলে তাকে আর পাওয়া যায়নি। শিক্ষার্থীরা খুঁজতে খুঁজতে এক পর্যায়ে হেফজখানার দুইতলায় তার গলাকাটা লাশ দেখতে পায়।

জানা যায়, লাশ উদ্ধারের সময় মাদ্রাসায় এই শিশুদের সাথে শিক্ষক হাফেজ জাফর আহমদ ছিল। এজন্য এই ঘটনার সাথে সে জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে।
অভিযুক্ত শিক্ষকের বাড়ি বাঁশখালী উপজেলায়। এর আগেও ওই তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ ছিল। এ ঘটনায় পুরো মাদ্রাসা ঘিরে রেখেছে উত্তেজিত জনগণ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ছুটে গেছেন এএসপি, ওসিসহ বোয়ালখালী থানা পুলিশের সদস্যরা।

এ ব্যাপারে বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল করিম বলেন, আমরা লাশ উদ্ধার করেছি। হত্যাকাণ্ডের পেছনের কারণ বের করার চেষ্টা করছি। এক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় সামনে এসেছে। আমরা এগুলো খতিয়ে দেখছি। সূত্র: মানবজমিন

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com