বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০২:৪৫ পূর্বাহ্ন

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপ ‘তামাশা’, অংশ নেবে না বিএনপি

নির্বাচন কমিশন গঠনে করতে সার্চ কমিটি গঠনে রাষ্ট্রপতির সংলাপে অংশ না নেওয়ার কথা জানিয়েছে বিএনপি। আজ সোমবার রাজধানীর গুলিস্তানে কাজী বশির মিলনায়তনে বিএনপির আলোচনাসভায় দলের শীর্ষ নেতারা এ কথা বলেন। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে রাজনৈতিক দলগুলোর সংলাপকে ‘নাটক ও তামাশা’ বলেও অভিহিত করেন তারা।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘দেশে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা সংযোজন করেছিলেন খালেদা জিয়া। আওয়ামী লীগ সরকার গায়ের জোরে তা বাতিল করে ক্ষমতায় আছে। এখন আগামী নির্বাচন করতে নাটক শুরু করেছে। নাটকের প্রথম মঞ্চায়ন হয়েছে আজ বঙ্গভবনে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তারা (রাষ্ট্রপতি) নির্বাচন কমিশন করার জন্য সার্চ কমিটি করার আলোচনা শুরু করেছে। এগুলো তামাশা। গত তিনটি নির্বাচনে আমরা দেখেছি নির্বাচন কমিশন রাবার স্ট্যাম্পের ভূমিকা পালন করেছে। শেখ হাসিনার সরকার যতদিন আছে কোনো নির্বাচন কমিশন এ দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন করতে পারবেন না। এগুলো নাটক, এগুলো তামাশা। এখানে মূল সঙ্কট বর্তমান স্বৈরাচারী সরকার। এ সরকারকে হটিয়ে নির্দলীয় সরকার গঠন করতে হবে, তখন নির্বাচন কমিশন গঠন হলে পরিবেশ সৃষ্টি হবে। তার আগে এসব নাটক করে লাভ হবে না।’

এ সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রেখে যাকেই নির্বাচন কমিশনার করা হোক, সেই কমিশনের অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না-এটা প্রমাণিত। রাষ্ট্রপতির এ সংলাপ একটি তামাশা। এ ধরনের সংলাপে অংশ নেওয়ার প্রশ্নই আসে না।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ বলেন, সার্চ কমিটি গঠনের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপতির যে ড্রামা চলছে, এই প্রতারণার সঙ্গে যারা থাকবে তারা বাংলাদেশের শত্রু, গণতন্ত্রের শত্রু এবং বাংলাদেশের জনগণের শত্রু।’

আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে অন্যায় এবং বেআইনিভাবে মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে। এর অর্থ হচ্ছে আওয়ামী লীগ আজকে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিতে পরিণত হয়েছে।’

ফখরুল বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রাখা হয়েছে। এখন তিনি জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে লড়াই করছেন, মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।’

প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি ও সহপ্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম আলিমের পরিচালনায় আলোচনাসভায় বক্তব্য দেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, বিএনপি নেতা আবদুস সালাম, আবুল খায়ের ভূঁইয়া, খায়রুল কবির খোকন, আবদুস সালাম আজাদ, রফিকুল আলম মজনু, আমিনুল হক, যুবদলের সাইফুল আলম নিরব, স্বেচ্ছাসেবক দলের মোস্তাফিজুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাদেক আহমেদ খান, কৃষক দলের হাসান শহিদুল ইসলাম বাবুল ও মৎস্যজীবী দলের রফিকুল ইসলাম মাহতাব প্রমুখ । সূত্র: আমাদের সময়

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com