বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:০৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
চুয়াডাঙ্গায় ভারতীয় বুপ্রেনরফাইন ইনজেকশনসহ দুই মাদক কারবারি আটক মোটরসাইকেলে ঘুরতে বেরিয়ে গাছের সাথে ধাক্কায় দশম শ্রেণির ছাত্র নিহত, আরেক বন্ধু আহত সেনাবাহিনীর জন্য সর্বাধুনিক অস্ত্র কিনছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় আনসার ভিডিপির উপজেলা সমাবেশ অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গায় পাওয়ারট্রলির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক নিহত, এক নারী আহত চুয়াডাঙ্গায় ভোক্তার অভিযানে দুটি প্রতিষ্ঠানের মালিককে জরিমানা চুয়াডাঙ্গায় গাঁজা গাছসহ হাতিকাটার মুছাহক মন্ডল আটক গাংনীতে মুদিব্যবসায়ীর আত্মহত্যা ব্র্যাকের আয়োজনে নাগরীক সংগঠনের প্রতিনিধিদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে কর্মশালা

স্বাধীনতার একক কৃতিত্বের দাবিদার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হলেও হয়ত আরো পরে হতো। এই গণঅভ্যুত্থানে এককভাবে নেতৃত্ব দিয়েছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশ সৃষ্টির যে আলোকবর্তিকা প্রজ্বলিত হয়েছিল সেই কৃতিত্বের সিংহভাগেরই দাবিদার আমাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষপূর্তি ও মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের অনুষ্ঠানের তৃতীয় দিনের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কোনো সময়ই অন্যায়ের পক্ষে ছিল না। আমি মনে করি, এটাই হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে বড় অর্জন।

আজকে বাংলাদেশের ইতিহাস লিখতে হলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবদান এককভাবে পঞ্চাশ ভাগের বেশি। সুতরাং আমরা বলতে পারি স্বাধীনতা পূর্বকালীন এবং স্বাধীনতার স্বপ্নপূরণসহ যা কিছু বলেন তার একক কৃতিত্বের দাবিদার, অংশীদার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয় যেমন ভালো কাজ করেছে, সেই বিশ্ববিদ্যালয়ই আবার বঙ্গবন্ধুকে বহিষ্কার করেছিল। তার অপরাধ তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের আন্দোলনে সমর্থন জানিয়েছিলেন, আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। যখন বহিষ্কার আদেশের জন্য বঙ্গবন্ধুকে শোকজ করা হয়, জবাবে বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ ন্যায়ের কথা বললে বহিষ্কারের হুমকি দেয়, সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো সনদ নেওয়া যথার্থ নয় বলে আমি মনে করি। এটা আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে ছোট করার জন্য বলছি না। অর্থাৎ কোনো কোনো সময় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনে খারাপ চিন্তা করা, স্বাধীনতার বিপক্ষের মানুষও ছিলেন।

আলোচনা সভায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর, ঢাবির বঙ্গবন্ধু চেয়ার ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অনারারি অধ্যাপক ড. আতিউর রহমানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন- জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, পল্পী-কর্ম ফাউন্ডেশন ড. খালেকুজ্জামান আহমেদ, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক রহমত উল্লাহ।

Please Share This Post in Your Social Media

১২

© All rights reserved © 2020 dailyamaderchuadanga.com