বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

যুব মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক গিনি ইসলামকে পিটিয়ে আহত

ষ্টাফ রিপোর্টার:

চুয়াডাঙ্গা জেলা যুব মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক গিনি ইসলামকে (৩৫) বাটাম দিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জেরে গিনি ইসলামের স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন তাকে পিটিয়ে আহত করে।  শুক্রবার দুপুরে আহতাবস্থায় গিনি ইসলামকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। গিনি ইসলাম চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের গোরস্থানপাড়ার রফিকুজ্জান রফিকের ন্ত্রী। আহত গিনি ইসলামকে সদর হাসপাতালে ভর্তি রাখার পর গতকালই বিকেলে বাড়ীতে ফিরেছেন।

সদর হাসপাতালে যুব মহিলালীগ নেত্রী আহত গিনি ইসলাম বলেন, আমার বাবার বাড়ীর জমি বিক্রি করে ১০ লাখ টাকা দিই আমার স্বামী রফিককে। ওই টাকা দিয়ে রফিক গোরস্থানপাড়ায় জমি কেনে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমার টাকা দিয়ে কেনা জমি বিক্রি ও তাদের বসত বাড়ী বিক্রি করে ঢাকায় চলে যাওয়ার পরিকল্পনা করে আমার স্বামী রফিক ও তার ভাবী নিপা খাতুন। শুক্রবার সকালে আমি জমি বিক্রি করতে নিষেধ করায় রফিক ও নিপা খাতুন আমাকে বাটাম দিয়ে পেটাতে থাকে। আমি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে রফিক ও নিপা আমাকে মেরে ফেলার হুমকী দেয়। খবর পেয়ে যুব মহিলালীগের অন্যান্য সদস্যরা আমাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আহসানুল হক দৈনিক নয়া শতাব্দীকে বলেন, আতহ গিনি ইসলামের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আধাতের চিহ্ন পাওয়া গেয়ে। আমরা তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের মহিলা সার্জারী ওয়ার্ডে ভর্তি রাখার নির্দেশ দিই।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসীন বলেন, এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কেউ থানায় কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com