সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
কোটচাঁদপুর হাসপাতালের স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে প্রশ্ন ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির চুয়াডাঙ্গায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাদকসেবীর কারাদন্ড ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের দাবিতে চাচার বাড়িতে ভাতিজির অনশন ৪বোতল ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক চুয়াডাঙ্গা যুব মহিলা লীগের আয়োজনে স্থানীয় শহীদ দিবস পালিত চুয়াডাঙ্গা যুব মহিলা লীগের আয়োজনে স্থানীয় শহীদ দিবস পালিত ৩৫ বছরের শ্রেষ্ঠ মৎস্য হ্যাচারি ম্যানেজার আশরাফ-উল-ইসলাম দরিদ্র অসহায় রোগীদের বিনামূল্যে অপারেশন করানো হবে- জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন কোটচাঁদপুরে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালন চুয়াডাঙ্গায় ভারতীয় বুপ্রেনরফাইন ইনজেকশনসহ আটক ১

আলমডাঙ্গায় ইউপি নির্বাচনে আনন্দ করার সময় বীর মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু, রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

ষ্টাফ রিপোর্টার:

ভাগ্নে তোবারক হোসেন চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এলাকাবাসীর সাথে আনন্দ উল্লাসে শরীক হন ছোট মামা বীর মুক্তিযোদ্ধা ও অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য ইকার উদ্দিন মালিথা। নিজের আনন্দ প্রকাশ করতে ইকার উদ্দিন মালিথা তার নিজের মুদিখানার দোকানের বিস্কুট-চকলেটও ফ্রি-তে দিতে থাকেন এলাকার সকলের মাঝে। গতকাল সোমবার সকালে গ্রামের সকলে মিলে রঙ মাখামাখি করার সময় বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকার উদ্দিন মালিথা হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকার উদ্দিন মালিথা (৭২) আলমডাঙ্গা উপজেলার বাড়াদী ইউনিয়নের অনুপনগর গ্রামের নওদাপাড়ার মৃত খোকা মালিথার ছেলে।
এলাকাবাসী জানায়, রোববার তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে আলমডাঙ্গা উপজেলার বাড়াদী ইউনিয়নে মোটরসাইকেল প্রতীকে (স্বতন্ত্র) তোবারক হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। নির্বাচনে জয়লাভ করায় সোমবার সকালে এলাকাবাসীর সাথে আনন্দে শরীক হন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান তোবারক হোসেনের ছোর মামা বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকার উদ্দিন মালিথা। এসময় তিনি তার মুদিখানার দোকান ভাই ভাই স্টোর থেকে ফ্রি-তে এলাকার সকলকে চকলেট-বিস্কুট খাওয়াতে থাকেন। সকালে গ্রামের সকলে মিলে রঙ মাখামাখি করার সময় বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকার উদ্দিন মালিথা হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রিয়াসাদ জামান বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকার উদ্দিনের মৃত্যু হয়েছে।

অপরদিকে, মামার মৃত্যুর খরর পেয়ে সদর হাসপাতালে ছুটে যান নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান তোবারক হোসেনসহ এলাকাবাসী। বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকার উদ্দিনের মৃতদের তার গ্রামের বাড়ীতে নেয়া হয়েছে।

এদিকে, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকার উদ্দিন মালিথার মৃতদেহ গতকাল সোমবার বাদ আছর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় জানাজ শেষে এলাকার কবরস্থানে দাফণকার্য সম্পন্ন করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com