বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ন

পুনরায় ভোট গ্রহণের দাবিতে মহাজনপুর ইউনিয়ন বাসী মানববন্ধন

মেহেরপুর বিশেষ প্রতিনিধিঃ

মঙ্গলবার সকাল ১০টা৩০ মিনিটের সময় মেহেরপুর জেলা প্রশাসক অফিসের সামনে ৪ নং মহাজনপুর ইউনিয়নের বিশেষ সহায়তায় সূক্ষ্ম কারচুপি করে ভোটের ফলাফল প্রদানে কালক্ষেপণ করায় যতারপুর ০১ নং ও ০২নং ওয়ার্ডের ভোট গ্রহণের দাবিতে মহাজনপুর ইউনিয়ন বাসী মানববন্ধন করে।গত ১১/১১/২০২১ ইং তারিখে ২য় ধাপে মহাজনপুর ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। ভোট চলাকালীন সময়ে মহাজনপুর ইউনিয়নে চরম উত্তেজনা বিরাজ করে। উত্তেজিত জনতাকে নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য পুলিশ এক জায়গায় চার রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও এক রাউন্ড টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে। মানববন্ধনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী রেজাউর রহমান নান্নু বলেন মহাজনপুর ইউনিয়নের নয়টি ওয়ার্ডের মধ্যে সাতটি ওয়ার্ডের ফলাফল বের হলে সেখানে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী প্রায় ২৪০০ ভোটে এগিয়ে ছিল। পরবর্তীতে বিদ্রোহী প্রার্থী আমাম হোসেন মিলুর নিজ গ্রাম যতারপুর ০১ নং ও ০২ নং ওয়ার্ডের ভোটের ফলাফল দিতে দেরি করে। ০১ নং ওয়ার্ডের ফলাফল অন্যান্য ওয়ার্ডের ফলাফল চেয়ে ৪০ মিনিট দেরিতে দিলেও ০২ নং ওয়ার্ডের ফলাফল প্রকাশ করতে প্রায় দুই ঘণ্টা সময় নেয়।নির্বাচনের দিন সকাল থেকে পুলিশ মহড়া ও মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাশেম এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ নৌকার বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত প্রতিটি সেন্টারে নৌকার কর্মীদের মারধর অ্যারেস্ট করার পরেও যখন ফলাফল তাদের পক্ষে আসেনি তখন যতারপুর আমাম হোসেন মিলুর নিজ সেন্টার ০১ ও ০২ নং ওয়ার্ডে আমার এজেন্ট দের বের করে দিয়ে তাদের পরিকল্পিত ফলাফল ঘোষণা করে। আমি এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং যতারপুর গ্রামের ০১ ও ০২ নং ওয়ার্ডের ফলাফল শূন্য গণনার আবেদন করছি। মানববন্ধন শেষে মেহেরপুর নির্বাচন অফিসার বরাবর ভোট পুনঃ গণনার জন্য একটি আবেদন পত্র জমা দিয়েছেন। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আব্দুল হামিদ, জাদুখালি স্কুল এন্ড কলেজের প্রিন্সিপাল মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান টিপু সহ মহাজনপুর ইউনিয়ন বাসী।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com