শুক্রবার, ৩০ Jul ২০২১, ০৩:৪৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

মেহেরপুরের গাংনীতে সরকারী ৬শতক জমি দখলের প্রতিবাদে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার দেবীপুর ঝোড়াঘাট গ্রামের কেন্দ্রীয় মসজিদ ও দেবীপুর বাজারের সংযোগের রাস্তা বন্ধ করে। খাস খতিয়ান ভুক্ত ৬ শতক জমি অবৈধ ভাবে দখল করে বসত বাড়ী ভেঙ্গে দেওয়ার প্রতিবাদে।  রবিবার ১৮ জুলাই বিকেল ৪টার সময় মানববন্ধর করেছে ঝোড়াঘাট গ্রাম বাসী।

মানববন্ধনের নেতৃত্ব দেন ঝোড়াঘাট গ্রামের ৭নং ওয়াড আওয়ামী লীগের সভাপতি মামুন আর রশিদ, সিরাজুল ইসলাম, হজরত আলী, ফজলুল হক, গিয়াস উদ্দিন, আব্দুর রাজ্জাক, হায়দার আরী, গোলাম হোসেন, খায়রুল ইসলামসহ গ্রামের ৪০টি পরিবারের সদস্যরা।
জমির মালিক দিদার উদ্দিন লিখিত অভিযোগে বলেন, আমাদের বেলিয়াঘাট মৌজার আর এস, ৩১৩,১৪৭,৩৮২ খতিয়ানের আর এস ১০১৪ নং দাগে মোট ৭০ শতক জমি আমরা দীর্ঘ শতবর্ষ ধরে বসোবাস করিতেছি। আর এস ৩১৩ খতিয়ানে ৩৫ শতক,১৪৭ খতিয়ানে ২৫ শতক, ৩৮২খতিয়ানে ৬৪ শতক জমি আমাদের নামে রেকর্ড হয়েছে।

বাকী ৬শতক জমি সরকারী খাস খতিয়ানে রেকড হয়েছে। তবে, ১০১৪ দাগে ৭০শতক জমির ম্যাপে একটি রাগ রয়েছে। সরকরী ৬ শতক জমির ম্যাপে কোন দাগ কাটা নেই। আমাদের এই জমির এক পাশ দিয়ে গ্রামের ৪০টি পরিবার ৬ শতক জমি রাস্তা হিসেবে ব্যবহার করে আসছে।বাকী ৬৪ শতক জমিতে আমিসহ আমার শরিকগণ দীর্ঘশতবর্ষ যাবৎ বসত বাড়ী নির্মাণ করে বসোবাস করছি।

হঠাৎ জানাতে পারী বামন্দী ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা রমজাল আলী আমাদের বসত বাড়ী ভেঙ্গে দেওয়ার জন্য মিথ্যা প্রতিবেন গাংনী সহকারী কমিশনার (ভূমি)বরাবর দাখিল করেছে। মিথ্যা প্রতিবেদন দেখে গত ১৫/৭/২১ তারিখে গাংনী সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমুল আলমের স্বক্ষরীত একটি অনুলিপি দিয়ে বলেছেন, ১০১৪ দাগে ৬ শতক জমিতে আপনাদের বাড়ী ঘর ভেঙ্গে অবৈধ স্থাপনা আগামী ২২/০৭/২০২১ তারিখের মধ্যে নিজ খরচে অপসারন করার জন্য বলেছেন।বাড়ী ঘর অপসারন না করলে ২৩/০৭/২১ তারিখে আমাদের বাড়ীঘর উচ্ছেদ করবে।

তিনি আরও বলেন, সরকারী ৬ শতক জমির ম্যাপে কোন দাগ কাটা নেই। তবে, আমাদের এই ১০১৪ দাগের ৭০ শতক জমির মধ্যে দিয়ে গ্রামের ৪০টি পরিবারের সাধারান মানুষ সরকারী ৬ শতক জমি রাস্তা হিসেবে চলাচল করে।এছাড়ও গ্রামের মসজিদে যাওয়ার একমাত্র রাস্তা হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

এই সকল তথ্য গোপন করে বামন্দী ইউনিয়ন (ভূমি)সহকারী কর্মকর্তা রমজাল আলী আমাদের নামীয় রেকডীয় জমি দখল নেওয়ার চেষ্টা করছে। এঘটনায় আমিসহ গ্রামবাসী জেলা প্রশাসক মেহেরপুর রবারব একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

এছাড়াও সদয় অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মেহেরপুর-২গাংনী আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য, গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার, চেয়ারম্যাণ বামন্দী ইউনিয়ন পরিষদ,সহকারী (ভূমি) কর্মকর্তা বামন্দীকে অনুলিপি প্রদান করেছি।যে আমাদের নিজ জমিতে বাড়ী ঘর রয়েছে। আমরা কোন সরকারী জমি দখল করি নি। বামন্দী ইউনিয়ন সহকারী (ভূমি)কর্মকর্তা মিথ্যা প্রতিবেদন দাখিল করেছে। এই প্রতিবেদন তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করেছে গ্রামবাসী।

এ বিষয়ে গাংনী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমুল আলম বলেছেন ওই জমি পাবলিকের হলে আমরা সেখানে ভাঙতে যাওয়ার এখতিয়ার রাকিনা। তবে, সেটা সরককরী খাঁস খতিয়ান ভূক্ত হলে সরকারের প্রয়োজনেই দখলে নেবে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT