শুক্রবার, ৩০ Jul ২০২১, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন

নবীগঞ্জ উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মুকুলের পরিবারের আর্ত্মনাদ

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলাধীন ১১নং গজনাইপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামিলীগ সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুলের পরিবার ষড়যন্ত্র মুলুক ও হিংসাত্মক মামলা থেকে মুক্তির দাবি জানিয়েছেন এবং পরিবার ও স্বজন দের আর্ত্মনাদও ব্যক্ত করেছেন।

জানা যায়, হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলা ১১নং গজনাইপুর ইউনিয়নে বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর উদ্দিনের ফিসারীতে গত ২৬/৫/২১ইং তারিখে ফিসারীতে বসবাসরত ঝাড়ু বেগম কে ধর্ষণ চেষ্টা ও তার স্বামী সহ তাকে কুপিয়ে এবং হাত পা কেটে মারাত্মক জখম করে ১৩ নং পানিউম্দা ইউনিয়নের নোয়া গাঁও গ্রামের প্রায় ৭/৯ জন লোক।

এ ঘটনার খবর থানা প্রশাসনের জানাজানি হলে পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে মুমূর্ষু অবস্থায় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেলে প্রেরণ করেন।এ ঘটনায় গ্রাম বাসী ব্যতিত থাকায় সঠিক ঘটনার মামলাও করতে পারেননি।

এ ঘটনায় সাতাইহালের ৬ মৌজা একটি মিটিংয়ের আয়োজন করে প্রতিবাদ জানিয়ে পঞ্চায়েতের মাধ্যমে যা করার একটা সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।বিষয়টি রাতেই প্রশাসনে জানাজানি হলে সকালে উপজেলা প্রশাসন থানা প্রশাসন ফুলতলি বাজারে হাজির হন।ইমদাদুর রহমান মুকুলের পরিবারের জানান,তিঁনি ঘুম থেকে উঠে বাথরুমেই যেতে পারেননি।

নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের খবর পেয়ে ফুল তলি বাজারে চলে যান।প্রশাসনের সাথে বৈঠকে বসা থাকা অবস্থায় নোয়া গাঁও গ্রামে কি ভাবে অগ্নিকান্ড ঘটতে পারে?তা নিয়ে আমরা সন্দিহান।

এখানে নিশ্চয় কোনো তৃতীয় পক্ষ রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় কলকাঠি নাড়িয়েছেন।আমরা তিঁনির ও গ্রেফতার কৃত সকলের মুক্তির দাবি জানাচ্ছি এবং যে বা যারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে,প্রশাসন যেনো সঠিক তদন্তের মাধ্যমে অপরাধী দের চিহ্নিত করেন সেই অনুরোধও জানিয়েছেন।

 

আমাদের চুয়াডাঙ্গা/ ফরজুন আক্তার মনি/এ.এইচ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT