বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে ঝিনাইদহের ৬টি পৌর এলাকায় বিশেষ বিধি নিষেধ জারী সাংবাদিক জনির মুক্তির দাবিতে মেহেরপুরে মানববন্ধন আজ প্রিয় ঋতু বর্ষার প্রথম দিন চুয়াডাঙ্গায় স্বাস্থ্য সচেতনতার বিভিন্ন প্রচারণামূলক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত মেহেরপুরে কোলড্রিংস ভেবে বিষপানে শিশুর মৃত্যু মেহেরপুরের ৩টি গ্রাম লকডাউন ঘোষণা, রাজশাহীগামী বিআরটিসি বাস বন্ধ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ১৪দিনের সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে ৫০ জনের করোনা শনাক্ত চুয়াডাঙ্গায় ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠিত ঝিনাইদহের শৈলকুপায় প্রতিবন্ধী সন্তান নিয়ে বিপাকে প্রতিবন্ধী পিতা, চান আর্থিক সহায়তা

চুয়াডাঙ্গায় মানবিক সহায়তা বিতরণকালে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম

ষ্টাফ রিপোর্টার:

চুয়াডাঙ্গায় আরও ১শ’ ৬০জন নরসুন্দর (সেলুনে কর্মরত কর্মচারী) ও দু:স্থ শিল্পীদের মাঝে মানবিক সহায়তা কর্মসুচীর আওতায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করা হয়েছে।  বুধবার ০৫ মে বেলা সাড়ে ১১টায় চুয়াডাঙ্গা ডিসি সাহিত্য মঞ্চ প্রাঙ্গনে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ মানবিক সহায়তা বিতরণ করেন।

এ সময় প্রত্যেককে ১০ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি পিঁয়াজ ও ১ কেজি মশুরীর ডাল, ১ লিটার সয়াবিন তেল, ১ কেজি চিনি ও ১ প্যাকেট সেমাই মানবিক সহায়তা হিসেবে প্রদান করা হয়। এবারে এ পর্যন্ত জেলা প্রশাসন থেকে ১ হাজার ১৪০ জনকে মানবিক সহায়তা কর্মসুচির আওতায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করা হয়েছে।
এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনিরা পারভীন, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর আমজাদ হোসেন, সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট হাবিবুর রহমান, সবুজ কুমার বসাক প্রমুখ।
বিতরণকালে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউনে মানুষের বেঁচে থাকার সহযোগিতার জন্য প্রধানমন্ত্রী মানবিক সহায়তা পাঠিয়েছেন। তিনি সকল শ্রেণী পেশার মানুষের কথা ভাবেন। তাই সকল শ্রেণী পেশার মানুষের মাঝেই এ সহায়তা বিতরণ করা হচ্ছে। এর আগেও নরসুন্দর, দু:স্থ শিল্পীদের শ্রমিক, ভাসমান ও দুস্থ, অসহায়সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। আপনাদের মাঝেও এগুলো বিতরণ করা হলো। আমাদের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সচেতন থাকতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। কোভিডে আক্রান্ত এবং মত্যুর সংখ্যা এখন মোটেও কম নয়। এটা দেখে হলেও আমাদের সচেতন হতে হবে। আমাদের মনে রাখতে হবে, করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে হলে সবথেকে আগে সচেতন হওয়া প্রয়োজন। যাঁরা স্বাস্থ্যবিধি মানতে চাচ্ছেন না, তারাই বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন। মাস্ক পরাসহ সব স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে।

 

আহসান আলম/এ.এইচ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT