রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০২:১০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মনে প্রাণে ধারণ করি- জুয়েল চেয়ারম্যান কুষ্টিয়ায় সেফটি ট্যাংকের ভিতরে ২ নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ইফতার বিতরণ মেহেরপুরের আমঝুপি গ্রামে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু চুয়াডাঙ্গায় গাঁজাসহ আটক ৩, ভ্রাম্যমাণ আদালতে জেল-জরিমানা ঝিনাইদহে ভারত ফেরত ১৪৭ বাংলাদেশী হোম কোয়ারেন্টাইনে কর্মহীন পরিবারের বাড়ীতে বাড়ীতে ইফতার সামগ্রী পৌঁছে দিলেন একদল যুবক চুয়াডাঙ্গার দর্শনা পৌরসভায় ভিজিএফ কার্ডধারীদের নগত অর্থ বিতরণ চুয়াডাঙ্গায় পূর্ব বিরোধের জেরে আ’লীগ কর্মী নজরুলকে কুপিয়ে জখম, আটক-১ ঝিনাইদহে বাম জোটের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

মেহেরপুর জেলায় পাখির প্রাণের মূল্যে আম-লিচু

বিশেষ প্রতিনিধি, মেহেরপুরঃ

মেহেরপুরে আম ও লিচু বাগান রক্ষার্থে প্রতিদিন শত শত পাখি নিধনের ঘটনা ঘটেছে। আর এই ন্যাক্কার জনক ঘটনাটি ঘটেছে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার থানা পাড়াতে। থানা পাড়ার হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের গাংনী উপজেলা সমন্বয়কারী হেলাল উদ্দীনের আম-লিচু বাগান রক্ষার জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে কারেন্ট জাল। আর এই জালের ফাঁদে আটকে প্রতিদিন মারা যাচ্ছে শত শত দেশীয় পাখি। নির্বিচারে পাখি হত্যার এমন ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে অবিলম্বে পাখি নিধন বন্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন পাখি প্রেমিকরা।

স্থানীয়রা জানান, প্রতিদিনের ন্যায় আজকেও প্রায় শতাধিক পাখি কারেন্ট জাল ছাড়িয়ে মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়েছে। পাখির উপদ্রব এড়াতে বাগানের চারদিকে উঁচু করে কারেন্ট জাল দেওয়ার ফলে জালে আটক পড়ে মারা যাচ্ছে পাখি। বাগানের উপর দিয়ে পাখি উড়ে যাবার সময় অত্যন্ত স্বচ্ছ এ জালে জড়িয়ে আটকা পড়ছে দোয়েল, শালিক,বাদুর,প্যাঁচাসহ নানা ধরনের দেশীয় পাখি। ফাঁদ থেকে ছুটতে না পেরে এক পর্যায়ে অনাহারে মারা যায় এসব পাখি।

গাংনী থানা পাড়া আজাহার আলীর ছেলে মহাসিন আলী জানান, তবে, পাখি উপর বাগান মালিকদের এমন নিষ্ঠুর আচরণ অত্যান্ত ন্যাক্কার জনক। এভাবে পাখি নিধন বন্ধে অবিলম্বে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবীও জানান তারা।

পাখি প্রেমিক সাংবাদিক মিনারুল ইসলাম বলেন, পাখি আমাদের পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে। পরাগায়নসহ বনের বিস্তারেও ব্যাপক ভুমিকা রাখে।

এছাড়া পরিবেশের সুন্দর্য বৃদ্ধি করে। এমন ন্যাক্কার জনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। সেই সাথে এই ঘটনার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

গাংনী সরকারি ডিগ্রি কলেজের জিয়াউল অধ্যাপক আহসান বলেন, ‘অনেকেই কারেন্ট জাল দিয়ে এভাবে পাখি নিধন করছে, এটি আমাকে পীড়া দেয়; এটিকে আমি ঘৃনা করি। অবশ্যই এটি রোধ হওয়া দরকার এবং সরকারের যে আইন আছে সেই আইনের প্রয়োগ দরকার। প্রকাশ্যে এমন পাখি নিধন চললেও নীরব স্থানীয় বন বিভাগ।’

বাগান মালিক দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের গাংনী থানা সমন্বয়কারী হেলাল উদ্দিন জানান, আমি আম-লিচুর বাগানে পাখির উপদ্রব ঠেকাতে কারেন্ট জাল ব্যবহার করেছি। পাখি মারা যাবে বিষয় ভাবতে পারিনি।

গাংনী উপজেলা বন কর্মকর্তা হামিম হাসান জানান, আমি একটি গুরুত্বপূর্ণ মিটিং-এ কুষ্টিয়াতে আছি। তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাথে যোগাযোগ করার জন্য পরামর্শ।

গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ জানান , বিষয়টি দেখছি।

 

কামাল হোসেন খাঁন/এ.এইচ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT