শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৯:১০ অপরাহ্ন

শিরোনাম
কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় কৃষকের লাশ উদ্ধার গাংনীতে এক কৃষককে ফাঁসানোর অভিযোগ আজ ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস ॥ সীমিত পরিসরে পালনের প্রস্তুতি উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান টুপি সহিদুলের কিল-ঘুষিতে বৃদ্ধ ইস্রাফিল নিহত জুয়ার আসর থেকে নগদ টাকা-জুয়াখেলার সরঞ্জামসহ গ্রেফতার-২ বেগমপুরের হরিশপুর সড়কের গাছ চুরিকালে চোর পাকড়াও দামুড়হুদার ডুগডুগী কাঁচাবাজার তদারকী করলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা চুয়াডাঙ্গায় করোনা পরিস্থিতিতে ভ্রাম্যমাণ সবজি ভ্যান কার্যক্রমের উদ্বোধন গাংনীর কাজীপুরে অগ্নিকাণ্ডে ৪টি বসতবাড়ী ভস্মীভূত ॥ ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি ঝিনাইদহের গণিত-পদার্থ বিজ্ঞানের এক সময়ের মেধাবী ছাত্রের দিন কাটে পথে পথে

৭১’এর ২৯ মার্চ তাজউদ্দীন আহমদ’র ঝিনাইদহ আগমনীতে অস্থায়ী সরকার গঠনে রুপরেখা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস বাঙালি জাতির জানা দরকার। বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিকালে দাঁড়িয়ে মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন স্মৃতিময় দিনগুলি মানসপটে ভেসে উঠেছে। বিশেষ করে বঙ্গবন্ধু কর্তৃক রেসকোর্স ময়দানে প্রদত্ত ভাষণে বাঙালি জাতি যে কতটা উজ্জীবিত হয়েছিল তা বলা ভার। বাঙালিদের প্রাণের কথা, মুক্তির কথা বেরিয়ে এসেছিল সে ভাষণ থেকে। তদানিন্তন রেসকোর্স ময়দানের ওই ভাষণের সময় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত জনপ্রতিনিধি ও অন্যান্য নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
এ ভাষণের মাধ্যমে পরবর্তী কর্মসূচী নির্ধারণ হয়ে গেল। এ সময়ে অনেকেই বঙ্গবন্ধুর ৩২ নং বাসভবনে সাক্ষাতে গেলে সবাইকে স্ব-স্ব এলাকায় গিয়ে সংগ্রাম পরিষদ গড়ে তোলার নির্দেশ দিলেন। ঝিনাইদহ সভা হলো এবং গঠিত হলো সংগ্রাম পরিষদ কমিটি, আহবায়ক নির্বাচিত হলেন তৎকালীন গভর্ণর জে কে এম এ আজিজ, সদস্য হলেন- এ বি এম গোলাম মজিদ, আফজাল জোযার্দ্দার, সিরাজুল হক, সিরাজুল ইসলাম, নূরুন্নবী সিদ্দিকী, তাইজউদ্দিন,আব্দুর রউফ, মন্টু বোস, আমির হোসেন মালিথা, লিচু মিয়া, সবুর মিয়া, দুদু মিয়া,আনছার মিয়া, তাহাজ্জত হোসেন, আবদুল গফুর, সত্যরঞ্জন মন্সী,আব্দুর রশিদ,আব্দুর রাজ্জাক বাদল,নুরল আলম,ইউসুফ কাজী,সাজেদুর রহমান, অনুকূল মুখার্জি, মতিয়ার রহমান, ওয়াহেদ জোয়ার্দ্দার, ভেলু মিয়া,সদর উদ্দিন, দেবদাস, কে আহমদ, রফিক, দাদ রেজা প্রমূখ।
এরপর আসে ২৫ মার্চের সেই ভয়াল কালো রাত্রী। সংগ্রাম পরিষদের নেতৃবৃন্দ সজাগ দৃষ্টি রাখছেন চতুর্দিকে নেতা কর্মীদের ব্যাপক উপস্থিতি পোষ্ট অফিস মোড়ে। মাঝে মাঝে মিছিলের ধবনি। রাত ৯/১০টার দিকে খবর আসে যশোর ক্যান্টনমেন্ট থেকে আর্মি বের হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত হবার জন্য যশোরের মশিউর রহমানকে ফোন করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে না পারলেও কয়েক মিনিট পরেই তিনি বিষয়টি সঠিক বলে
উল্লেখ করে জানান, ২০ থেকে ৩০ খানা গাড়ীর সামরিক কনভয় যাচ্ছে ঝিনাইদহ মহকুমা অভিমূখে। আর বিলম্ব নয়, শুরু হয়ে গেল প্রতিরোধ ব্যবস্থা। রাস্তায় রাস্তায় ফেলা হলো গাছের গুড়ি।
মাগুরা-যশোর-চুয়াডাঙ্গা-কুষ্টিয়া অর্থাৎ ঝিনাইদহ প্রবেশের সড়ক গুলি বন্ধ হয়ে গেল। ২৬ মার্চ পোষ্ট অফিস মোড়ে মুক্তিকামী জনতার ব্যাপক সমাবেশ ঘটে। সেখানে সংগ্রাম পরিষদের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। ২৭ মার্চ পানি উন্নয়ন বোর্ডে ইন্জিয়ার আবদুল লতিফের বাসায় এক জরুরী সভায় সংহতি প্রকাশ করেন এস ডি পি ও মাহবুবউদ্দিন আহমদসহ অনেক সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারী সংহতি প্রকাশ করেন। এ সভায় ৪টি উপ কমিটি গঠন করে দায়িত্ব বন্টন করা হয়। যুদ্ধ পরিচালনায় মাহবুবউদ্দিন, খাদ্যের দায়িত্ব নুরুন্নবী সিদ্দিকী, লিচু মিয়া, দুদু মিয়া ও ভেলু মিয়ার উপর এবং অর্থনৈতিক দায়িত্ব দেওয়া হয় এবিএম গোলাম মজিদ ও তৎকালীন এসডি ও ইনচার্জ নেফাউর রহমান ও আবদুল গফুরের উপর। ব্যক্তিগত নিরাপত্তার কারণে রাতে আত্মগোপনে থাকতেন আজিজ সাহেব। পৌর গোরস্তানের পূর্ব পাশে দুদু মিয়ার বাসায় গড়ে ওঠে মুক্তিযুদ্ধ আঞ্চলিক তথ্য কেন্দ্র (মুক্তি ঝিনাইদহ)। টেলিফোন এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে সিএন্ডবি’র টেলিফোন সংযোগ দেয়া হয় দুদু মিয়ার বাড়ীতে। জরুরী প্রয়োজনে ফোনটি ব্যবহার করা হতো। এই নাম্বারে ২৮ মার্চ গভীর রাতে রিং বেজে উঠলো।
ফোন রিসিভ করতেই মাগুরার সোহরাব হোসেন জানালেন, ভাই এসেছেন, তিনি অসুস্থ তোমরা এসে নিয়ে যাও। ভোরে আজিজ সাহেব ড্রাইভারসহ একটি গাড়ী সংগ্রহ করে মাগুরার দিকে রওনা দিলেন। রাস্তায় বিভিন্ন জায়গায় গাছ ফেলানো হয়েছে পাকসেনাদের বাঁধা সৃষ্টির জন্য। রাস্তায় চলতে হচ্ছে বেশ কষ্ট করেই।গাড়ী আলমখালী ছেড়ে একটু এগুতেই দেখা গেল একটা টেম্পু আসছে। গাড়ীর লাইট দেখে টেম্পুটি থেমে গেল। ওই টেম্পু থেকে দু’জন লোক নেমে আসলেন। আজিজ সাহেবও নামলেন। এরপর তাদের মধ্যে যে বাক্যগুলো বিনিময় হলো তা বেশ মজার।
ব্যারিষ্টার আমিরুল ইসলাম বললেন, মোহাম্মদ আলী (তাজউদ্দীন) ভাই অসুস্থ তাকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে এলাম।
তখন তাজউদ্দীন আহমদ বললেন, আমি একটু অসুস্থ তাই রহমত আলী (ব্যারিষ্টার আমিরুল ইসলাম) কে সাথে করেই নিয়ে আসলাম। এরপর সবাই গাড়ীতে উঠলেন। গাড়ী ঝিনাইদহের দিকে ছুটছে, ২৯ মার্চের ভোরের সূর্য যখন পূর্ব কোনে উঁকি দিচ্ছে তখন গাড়ীটি ষ্টেডিয়াম -এর পাশ দিয়ে ঢুকে বকুলতলার পাশে প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কার্যালয়ের সামনে নেতৃবৃন্দ হাঁটতে হাঁটতে সেই গোপন আস্তানা দুদু মিয়ার বাড়ীতে পৌঁছালো। সারা শহর জুড়ে নিস্তব্দ নিরবতা লোকশুন্য হয়ে পড়েছে। তাজউদ্দীন আহমদসহ সবাই বিশ্রাম নিলেন।
উল্লেখ্য- ছদ্মবেশে তাজউদ্দীন আহমদ’র কাপড় চোপড় পরার মতো ছিল না। দুদু মিয়া ঝিনাইদহের আরাপপুর থেকে একটি লুঙ্গী ও একটা গেঞ্জী কিনে এনে দিলে গোসল সম্পন্ন করেন। বাড়ীতে খাবার মতো কিছুই ছিল না। প্রতিবেশী হেকমত আলী ঝুঁকি নিয়ে হোটেল থেকে নাস্তা এনে নেতাদের পরিবেশন করে। অতঃপর দুদু মিয়ার বাড়ীতে বসে এক রুদ্ধদ্বার বৈঠকে অস্থায়ী সরকার গঠনের রুপরেখা গ্রহণ করেন।
যেহেতু, তাজউদ্দীন আহমদ এবং ব্যারিষ্টার আমিরুল ইসলাম ভারতে যাবেন, তাদের কে বর্ডারে পৌঁছাতে হবে। ফোন করা হলো মাহবুব সাহেবের কাছে, তিনি সকাল ১০টার দিকে গোরস্তানের সামনে পূর্ব দিকে রাস্তায় একটু এগিয়ে জীব গাড়ীটি থামান। গাড়ীর কাছে নেতৃ্দ্বায় পৌঁছালে আজিজ সাহেব পরিচয় করিয়ে দেন এভাবে, ইনি মোহাম্মদ আলী (তাজউদ্দীন আহমদ) আর ইনি রহমত আলী ব্যারিষ্ট্ার আমিরুল ইসলাম।
সে সময় এসডিপি ও মাহবুব সাহেব নিজের পরিচয় দিতে বলেন, আমি অধম কেরামত আলী, আর কোন বিলম্ব না করে গাড়ীটি নেতাদের নিয়ে মেহেরপুরের উদ্দেশ্যে চলে যায়। এরপর পাকসেনারা সর্বাত্নক প্রস্তুতি নিয়ে ঝিনাইদহ শহর দখলে নিয়ে নিলে দুদু মিয়া গ্রামে চলে যান। তার বড় ছেলে তরুকে নিয়ে বাড়ীটি ছেড়ে যাওয়ার সময় দেয়ালে ছোট একটি ইটের টুকরো দিয়ে লেখেন “দুদু মিয়া”। পরে তার বাড়ীর সর্বস্ব লুট হয়ে যায়। পরবর্তীতে ১০ এপ্রিল ‘৭১ অস্থায়ী সরকার গঠন হয়ে ১৭ এপ্রিল বর্তমান মুজিবনগরে শপথ অনুষ্ঠান হলো। অবশেষে ৯ মাসের সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে ১৬ ডিসেম্বর ৭১ বিজয় সুচিত হলো। আজ স্বাধীনতার ৫০ বছর অতিক্রম করছি আমরা। কিন্তু যাদের এতোবড় অবদান ছিল স্বাধীনতা যুদ্ধে তাদের অনেকের ন্যায় জে কে এম এ আজিজ ও মতিয়ার রহমান দুদু মিয়ার মত মুজিব আদর্শিক লোক। তাদের পরিবার অবহেলিত হয়ে থাকবেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার সু-দৃষ্টি এলে তা নিরসন হবে এমনটাই সকলের পরিবারের প্রত্যাশা।

 

 

আনোয়ার হোসেন/এ.এইচ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT