শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
দামুড়হুদায় গ্রাম ভিত্তিক অস্ত্র বিহীন ভিডিপি মৌলিক প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান। চুয়াডাঙ্গায় ট্রাকচাপায় ঘুমান্ত হেলপার নিহত গাংনীতে নুপুর নামের গৃহবধুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার বিমান রয়েছে যে শহরে প্রত্যেকেরই যাতায়াত সব আকাশপথে ফাতেমা হত্যা মামলা তদন্ত পিবিআই’তে হস্তান্তরের দাবী ৩ দিনের মধ্যে বাড়ী ছাড়ার নির্দেশ তালেবানের, প্রতিবাদে রাস্তায় শত শত মানুষ আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা হচ্ছে না, যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী অনলাইন পোর্টালের নিবন্ধন প্রক্রিয়া আদালতকে জানাবো: তথ্যমন্ত্রী দামুড়হুদায় ৩০ পাউন্ড কেক কেটে টগর এমপি’র জন্মবার্ষিকী পালন চুয়াডাঙ্গায় খেলতে গিয়ে ২ বন্ধুর ঝগড়ায় অন্যের নাকগলানী, অতঃপর………….

চুয়াডাঙ্গায় আ’লীগ নেতাকে গণপিটুনি, চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু- ১১ জনের নামে মামলা

ষ্টাফ রিপোর্টার:

চুয়াডাঙ্গায় বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে স্থানীয় আ’লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলমকে গণপিটুনিতে হত্যার অভিযোগ করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ছয়ঘড়িয়া গ্রামের কেরু অ্যাণ্ড কোম্পানী লিমিটেডের খামারের পাশে বালির গাদায় এ ঘটনা ঘটে। ২৪মার্চ বুধবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তির পর সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেলে মারা যায় জাহাঙ্গীর আলম। নিহত জাহাঙ্গীর আলম (৩৮) সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের নুরুল্লাপুর বীলপাড়ার রনজিত মল্লিকের ছেলে। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীরের বাবা বাদী হয়ে ১১ জনকে আসামী করে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।

হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, বুধবার বেলা ১টার দিকে ৩জন লোক রক্তাক্ত আহতাবস্থায় জাহাঙ্গীর আলমকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালের সামনে গোলচত্বরে তারা জাহাঙ্গীরকে রেখে সটকে পড়ে। হাসপাতালের সামনে থাকা লোকজন জাহাঙ্গীরকে উদ্ধার করে জরুরী বিভাগে নিয়ে যায় এবং তারাও জাহাঙ্গীরকে জরুরি বিভাগে রেখে সটকে পড়ে। রক্তাক্ত অবস্থায় জাহঙ্গীরকে যখন হাসপাতাল চত্বরে ফেলে রেখে যায় ওই সময় বেশ ক’একজন তার এই অবস্থার কথা জানতে চাইলে জাহাঙ্গীর তাদেরকে বলে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এমন হয়েছে। পরবর্তীতে জরুরী বিভাগের স্বেচ্ছাসেবীদের কাছে গণপিটুনির কথা শিকার করে।

এ সময় জাহাঙ্গীর বলেন, বুধবার ছয়ঘড়িয়া গ্রামে গিয়েছিলাম পূর্বশত্রুতার জেরে বেশ ক’একজন তাকে গণপিটুনি দেয়। পরবর্তীতে তারা আমাকে ছয়ঘড়িয়া গ্রামের কেরু অ্যান্ড কোম্পানীর খামারের পাশে বালুর গাদার পাশে ফেলে রেখে যায়।

সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. ওয়াহেদ মাহমুদ রবিন বলেন, দুপুরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় জাহাঙ্গীল আলম নামের এক যুবককে জরুরী বিভাগে আনা হয়। যারা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে পরবর্তীতে তারা তাকে রেখে চলে যায়। আমরা তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রাখি।

এদিকে, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বেলা ৪টার দিকে জাহাঙ্গীরের মৃত্যু হয়। জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহাবুবুর রহমান তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অপরদিকে, জাহাঙ্গীর আলম নামের এক যুবক নিহত হয়েছে এমন সংবাদে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) জাহাঙ্গীর আলমসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা হাসপাতালে ছুটে যান। পরবর্তীতে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফখরুল আলম খানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ব্যাপারে তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শুকুর আলী জানান, নিহত জাহাঙ্গীর আলম তিতুদহ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং আমার বালুর গাদার ম্যানেজার। গতকাল সেখানে বালু আনতে পাঠালে কয়েকজন তাকে পিটিয়ে আহত করে সেখানে ফেলে রেখে যায়।

নিহত জাহাঙ্গীর আলমের ভাই ইকবাল হোসেন বলেন, বালু উত্তোলন ও চাঁদাবাজী নিয়ে ছয়ঘড়িলা গ্রামের প্রতিপক্ষ একটি গ্রুপের সাথে জাহাঙ্গীরের বিরোধ চলে আসছিলো। সেই বিরোধের জেরে তারা জাহাঙ্গীরকে পিটিয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান জানান, গতকাল দুপুর ২টার দিকে খবর পাই গণপিটুনির শিকার একজনকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওই ব্যক্তির কাছে জিজ্ঞাসা করলে প্রাথমিকভাবে সে কোন তথ্য না দিলেও পারবর্তীতে জানতে পারি যে, চুয়াডাঙ্গা পানি উন্নয়ন বোর্ড নিয়ন্ত্রিত একটি বালুর গাদা আছে ছয়ঘড়িয়া গ্রামে। সেখানে বালু তোলাকে কেন্দ্র করে দুইটি গ্রুপের সৃষ্টি হয়েছে এবং তারা এখন সেখানে যায় না। প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া যায় নিহত ব্যক্তি জাহাঙ্গীর একটি বিশেষ গ্রুপের সমর্থক। গতকাল সে ঘটনাস্থলে গেলে অপর গ্রুপের সদস্যরা তাকে মারপিট করে গুরুতর জখম করে। স্থানীয় লোকজন তাকে একাকি পড়ে থাকতে দেখে সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা ৪টার দিকে জাহাঙ্গীর মৃত্যুবরণ করে। আমরা ঘটনাস্থলে যায় এবং সেখানে যুক্তিগঙ্গত কোন তথ্য পাওয়া যায় নি।

এ বিষয়ে অনুসন্ধান করা হচ্ছে। যারা এ কাজের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি আরও বলেন, গতকাল রাতে জাহাঙ্গীর আলমের বাবা রনজিত মল্লিক বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে।

 

 

আহসান আলম/এ.এইচ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT