শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

জীবননগরে বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী-জাতীয় শিশু দিবসের অনুষ্ঠানে এমপি টগর

জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি:

জীবননগরে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে পালিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস। ১৭ মার্চ বুধবার সকালে উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা আওয়ামী লীগ, পৌরসভার ও বিভিন্ন শিক্ষ প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে নানা কর্মসূচি গ্রহন করা হয়।
জীবননগর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আনুষ্ঠানিক পতাকা উত্তোলন করা হয়। উপজেলা পরিষদ চত্তরে বঙ্গবন্ধু ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে স্থানীয় সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। এর পর হাজী আলী আজগার টগর এমপির নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ, জীবননগর পৌরসভা, বীর মুক্তিযোদ্ধাগন পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। এর আগে উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বাসষ্ট্যান্ড মুক্তমঞ্চে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। এ ছাড়াও পৌর মেয়রের নেতৃত্বে বাসষ্ট্যান্ড মুক্তমঞ্চে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের কেক কাটা হয়।
সকাল সাড়ে ৯টায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসের আলোচনা সভা ও কেক কাটার আয়োজন করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম মুনিম লিংকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর।
আলোচনা সভায় তিনি বলেন, ৭৫’র ১৫ আগষ্ট আমরা বঙ্গবন্ধুকে হারিয়েছি। সেদিন বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের সাথে ছোট্ট শিশু শেখ রাসেলও রেহায় পায়নি। এই হত্যা কান্ডে বঙ্গবন্ধুরসহচার মোস্তাক আহম্মেদ বিশ্বাস ঘাতকতা করেছিলেন। ষড়যন্ত্রের সাথে যুক্ত ছিলো জিয়াউর রহমান। আজকে বিএনপি বলে জিয়াউর রহমান নাকি স্বাধীনতার ঘোষক। ৭মার্চ বঙ্গুবন্ধু যে ভাষন দিয়েছিলো তা শুনলেই বোঝা যায় ওই ভাষনের ভিতরে কি নাই। কি ভাবে রাষ্ট্র পরিচালিত হবে, কিভাবে মুক্তিযুদ্ধ পরিচালিত হবে, দেশ স্বাধীন করতে হলে যা যা দরকার তার সবকিছুই তিনি তা বক্তব্যের মাঝে বলে গেছেন। তিনি বলেন, আজকের দিনে বঙ্গবন্ধু না জন্মালে বাংলাদেশ যেমন স্বাধীন হতোনা ঠিক তেমনি পাকিস্তানীদের শোষন নির্যাতনের মিকার হতে হতো বাঙালীদের। তাই আগামী প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তাদের মনে গেঁথে দিতে পারলে বঙ্গবন্ধুর জীবন সার্থক হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী হাফিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবু মোঃ আব্দুল লতিফ অমল, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকী, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমিন আক্তার, এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগন, সরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারী। অলোচনা সভা শেষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোমলমতি শিশুদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর কেক কাটেন হাজী আলী আজগার টগর এমপি।

 

এ.এইচ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT