সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় কৃষকের লাশ উদ্ধার গাংনীতে এক কৃষককে ফাঁসানোর অভিযোগ আজ ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস ॥ সীমিত পরিসরে পালনের প্রস্তুতি উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান টুপি সহিদুলের কিল-ঘুষিতে বৃদ্ধ ইস্রাফিল নিহত জুয়ার আসর থেকে নগদ টাকা-জুয়াখেলার সরঞ্জামসহ গ্রেফতার-২ বেগমপুরের হরিশপুর সড়কের গাছ চুরিকালে চোর পাকড়াও দামুড়হুদার ডুগডুগী কাঁচাবাজার তদারকী করলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা চুয়াডাঙ্গায় করোনা পরিস্থিতিতে ভ্রাম্যমাণ সবজি ভ্যান কার্যক্রমের উদ্বোধন গাংনীর কাজীপুরে অগ্নিকাণ্ডে ৪টি বসতবাড়ী ভস্মীভূত ॥ ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি ঝিনাইদহের গণিত-পদার্থ বিজ্ঞানের এক সময়ের মেধাবী ছাত্রের দিন কাটে পথে পথে

চুয়াডাঙ্গা জেলার নিকাহ রেজিষ্ট্রার-কাজীগণের সাথে বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা

ষ্টাফ রিপোর্টার:

চুয়াডাঙ্গা জেলার নিকাহ রেজিষ্টার ও কাজী গণের সাথে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৩ মার্চ শনিবার বেলা ১১টায় চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সভাকক্ষে পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামের সাথে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। আলোচনা সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু তারেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) কনক কুমার দাস, ডিআইও-১ মারুফ হোসেনসহ নিকাহ রেজিষ্টার জেলা সমিতির আমন্ত্রিত মোট ৫৬জন উপস্থিত ছিলেন।
পুলিশ সুপারের অনুমতিক্রমে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু তারেক, নিকাহ রেজিষ্ট্রার কমিটির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব কাজী শামছুল হক এবং সহ-সভাপতি কাজী আব্দুল হক আব্বাসী প্রমুখ। তাদের বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ সংক্রান্তে বক্তব্য ও মতামত প্রদান করেন।
সভাপতির বক্তব্যে পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম নিকাহ রেজিষ্ট্রার/কাজীগণের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা সকলেই হেদায়েতের পথের পথপ্রদর্শক। আপনারা সকলকে পথ দেখান। আপনারা যদি বাল্য বিয়ে না পড়ান তাহলে চুয়াডাঙ্গা জেলায় বাল্য বিয়ে অনেকাংশেই রোধ করা সম্ভব হবে। আসুন আমরা সকলেই বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে সবার নিজ নিজ স্থান থেকে সোচ্চার হই। তিনি পবিত্র কোরআন ও সুন্নাহার আলোকে এবং দেশের প্রচলিত আইনের ব্যাখ্যা প্রদানসহ উপস্থিত কাজীগণকে বাল্য বিয়ে নিরোধে সকলকে একযোগে কাজ করার আহবান জানান। সভায় সর্বস্মতিক্রমে নিম্ন বর্ণিত সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ

০১। বিয়ে কার্য সম্পন্ন করার ক্ষেত্রে বয়স প্রমাণের জন্য জন্ম নিবন্ধন/জাতীয় পরিচয়পত্র ও এসএসসি পাশের সার্টিফিকেট দেখতে হবে।

২। কোন অবস্থায় বাল্য বিয়ে করানো যাবে না।

৩। ধর্মীয় অনুশাসন সকলকে মেনে চলতে হবে, কোন অবস্থাতেই নারীর অবমূল্যায়ণ করা যাবে না।

৪। নারী ও শিশু আইন মোতাবেক ১৮ বছরের কম বয়সী সকলেই শিশু হিসেবে গণ্য হবে।

৫। ছেলেদের ক্ষেত্রে বিয়ের বয়স কমপক্ষে ২১ এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে বিয়ের বয়স ১৮।

৬। বাল্য বিয়ে করানোর ক্ষেত্রে যদি কেউ বল প্রয়োগ করে তাহলে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ সুপার, চুয়াডাঙ্গা/সংশ্লিষ্ট থানার অফিসার ইনচার্জ’কে অবহিত করতে হবে।

৭। সুনাগরিক হিসেবে রাষ্ট্রীয় আইন সকলকে মেনে চলতে হবে।

৮। ধর্মীয় বিধি-বিধানগুলো বিকৃতি করে নিজের পক্ষে প্রয়োগ করা যাবে না।

৯। কাজী সমিতি অঙ্গিকার করেন মুজিববর্ষে কোন বাল্য বিয়ে হবে না।

১০। বিয়ে কার্য সম্পন্ন করবেন পবিত্র কোরআন এর আইন অনুসারে।

১১। বাল্য বিয়ে রোধে পাড়া/মহল্লায় কাজীগণ ছোট ছোট সমাবেশের আয়োজন করবেন।

১২। ইমামবৃন্দ মসজিদে খুৎবায় বাল্য বিয়ের কুফল সর্ম্পকে আলোচনা করবেন।

১৩। প্রত্যেকে স্ব স্ব দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকায় বিয়ে রেজিষ্ট্রি করবেন। কেউ দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকার বাইরে বিয়ে রেজিষ্ট্রি করবেন না।

১৪। কোন ধরণের সমস্যা সৃষ্টি হলে তাৎক্ষণিকভাবে সংশ্লিষ্ট থানাকে অবহিত করবেন।

 

আহসান আলম/এ.এইচ

 

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT