সোমবার, ২১ Jun ২০২১, ০১:১৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
এবার ‘বাড়ীর কাজে’ শিক্ষার্থী মূল্যায়ন, বাতিল হচ্ছে পিইসি পরীক্ষা: বাতিল হতে পারে ইইসি, জেএসসি ও জেডিসিও ‘অন্যের চাকরির উৎস হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে’ ভূমিধস বিজয়ে ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রায়িসি ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ হত্যা করে ৯৯৯ নম্বরে ফোন, ‘বাবা, মা, বোনকে খুন করেছি, আইস্যা নিয়া যান’ চুয়াডাঙ্গায় করোনায় আক্রান্ত আরও ৩ জনের মৃত্যু: নতুন সংক্রমণ ৬৮ চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকা ও আলুকদিয়া ইউনিয়ন লকডাউন ঘোষণা অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমকালে বাংলাদেশী ২৫ নাগরিক আটক সলঙ্গায় ২০০ মিটার নতুন পাকা রাস্তা পেয়ে আনন্দিত এলাকাবাসী নবীগঞ্জ উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মুকুলের পরিবারের আর্ত্মনাদ

নবনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্বশীলতার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান- এমপি টগর

জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি:

জীবননগর পৌর সভার নব-নির্বাচিত মেয়র রফিকুল ইসলাম দায়িত্বভার গ্রহণ করেছে। ১১ মার্চ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় পৌর হলরুমে সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম আনুষ্ঠানিকভাবে নব-নির্বাচিত মেয়রের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করে। দায়িত্ব গ্রহণ ও হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর। বিশেষ অতিথি ছিলেন- উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম মুনিম লিংকন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, নব-নির্বাচিত কাউন্সিলর বৃন্দ, পৌর সভার সচিবসহ কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দ। পরে পৌর ভবন চত্বরে নব-নির্বাচিত মেয়রের অভিষেক ও সাবেক মেয়রের বিদায়ী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
নব-নির্বাচিত মেয়র রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাজী আলী আজগার টগর বলেন, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের উচিত জনবান্ধব জনপ্রতিনিধি হওয়া। আমার তিক্ত অভিজ্ঞতার আলোকে বলতে পারি সাধারণ মানুষ চেয়ারম্যান অথবা মেয়রদের কাছে টাকা পয়সা নিতে আসে না। তারা ছোট খাটো সমস্যা নিয়ে জনপ্রতিনিধিদের দারস্ত হয়। আপনি যদি তাদেরকে কাছে বসিয়ে তাদের সুখ দুঃখের কথা একটু মন দিয়ে শুনে সমস্যা সমাধানের তাৎক্ষণিক উদ্যোগ নেন; তাহলে ওই ব্যক্তি কখনো আপনাকে ভুলতে পারবে না। যদি কোনো কোনো ক্ষেত্রে কাজটি নাও হয় তবে, ওই ব্যক্তি বলবে আমার জন্য চেষ্টা তো করেছিলো। এটি বর্তমান মেয়রসহ সকল জনপ্রতিনিধিদের স্বরণে রাখা উচিত। নির্বাচনে আবারও জনগণের কাছে তাদেরকে যেতে হবে।
তিনি আরো বলেন, ২০০৮ সালে জাতীয় নির্বাচনে প্রথমবার আমি যখন নির্বাচিত হয়। তখন এ অঞ্চলের মানুষ আমার কাছে তাদের সমস্যার কথা বলেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের রাস্তা ঘাটের সমস্যা কথা শুনতে শুনতে আমি মাঝে মধ্যে নিরবে বসে ভাবতাম এ অঞ্চলের হাজারো সমস্যা কি ভাবে সমাধান করবো। কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনা দক্ষ নেতৃত্ব ও সুদুর প্রসারী পরিকল্পনায় বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল রাষ্ট্রের মর্যদা পাচ্ছে। আজ আমার নির্বাচনী এলাকায় রাস্তা ঘাট নির্মাণ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নতুন নতুন বিল্ডিং নির্মাণ, ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন এবং ৩১শয্যার থেকে ৫০শয্যার উন্নীত করাসহ সকল ক্ষেত্রে অভুতপূর্ন উন্নয়ন হয়েছে।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশার উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোশারফ হোসেন মিয়া, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজা, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবু আব্দুল লতিফ অমল, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, সম্পাদক, পৌর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি, সম্পাদক, বীর মুক্তি যোদ্ধাগণ, পৌর কর্মকর্তা কর্মচারীগণ, স্থানীয় সূধী ব্যক্তিবর্গগণ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT