রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১০:২৩ পূর্বাহ্ন

চুয়াডাঙ্গায় ডিভোর্স দেওয়া স্বামীর ছুরিকাঘাতে সীমা নামের এনজিও কর্মীর মুখমণ্ডল ক্ষতবিক্ষত

ষ্টাফ রিপোর্টার:

চুয়াডাঙ্গায় সীমা আক্তার নামের এক এনজিও কর্মীকে ছুরিকাঘাতে জখম করা হয়েছে। তার সাবেক স্বামী ও সাবেক বিজিবি সদস্য মামুন ধারালো অস্ত্র ছুরি দিয়ে তাকে জখম করেছে বলে সীমা আক্তার অভিযোগ করেন। ১৬ ফেব্রুয়ারী   মঙ্গলবার বেলা ৩ টার সময় চুয়াডাঙ্গা পুলিশ পার্কে এ ঘটনা ঘটে। আহত সীমা আক্তার ঝিনাইদহ জেলার সাবদারপুর এলাকার বাসীন্দা। চাকরীর কারণে তিনি চুয়াডাঙ্গা পলাশপাড়ার ভাড়ায় বসবাস করেন। আহত সীমা আক্তারকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। এদিকে এ ঘটনার পরই পার্কে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা অভিযুক্ত মামুনকে হাতেনাতে আটক করে সদর থানা হেফাজতে নেয়। অভিযুক্ত মামুন সাবেক বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি’ব) সদস্য ছিলেন। তিনি চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আলুকদিয়া ইউনিয়নের মনোহারপুর গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শী এক নারী জানায়, মঙ্গলবার   দুপুরে সীমা আক্তার ও মামুন পার্কে বসে ছিল ৷ এসময় মামুন একটি ছুরি দিয়ে সীমা আক্তারের উপর হামলা চালায়। এতে সীমা আক্তারের মুখমণ্ডল ক্ষতবিক্ষত হয়ে যায়। পরে অভিযুক্ত মামুন ছুরিটা মাথাভাঙ্গা নদীতে ফেলে পালাতে গেলে পুলিশ সদস্যরা তাকে ধরে ফেলে।
সীমা আক্তারের এক সহকর্মী বলেন, গত ৩০ জানুয়ারী মামুনকে ডিভোর্স দেন সীমা আক্তার। এরপর থেকে মামুন প্রায়ই বিভিন্নভাবে তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। গতকাল রাতে সীমা আক্তারের ভাড়া বাসায় গিয়েও হুমকী ধামকী দেয়। সীমা আক্তার বিষয়টি বোঝার জন্য গতকাল মঙ্গলবার মামুনের ডাকে সারা দিয়ে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ পার্কে যায়। কথা বলার একপর্যায়ে মামুন ধারালো অস্ত্র ছুরি দিয়ে সীমা আক্তারের উপর হামলা চালালে তিনি রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিত লুটিয়ে পড়েন। পার্কে থাকা অন্যান্যরা তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়।
সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. ওয়াহেদ মাহমুদ রবিন বলেন, সীমা আক্তারের অবস্থা শঙ্কামুক্ত। তার মুখমণ্ডলের বা দিকে ক্ষতবিক্ষত হয়েছে। সেখানে অসংখ্য সেলায় দেয়া হয়েছে ৷ প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ভর্তি করা হয়েছে।
চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান বলেন, গতকাল দুপুরে পুলিশ পার্কের মধ্যে সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে এক নারী জখম হয়েছে। পরে অভিযুক্ত মামুনকে আটক করে থানা হেফাজতে নেয়া হয় ৷তিনি সাবেক বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি’র) সদস্য ছিলেন। এই নারীর অভিযোগের পেক্ষিতে মামুনকে চাকরী থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কোন অভিযোগ পাই নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো বলে জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT