শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
আমঝুপির মাঠে কলার কাঁদি কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা মুকুট মণি সম্মানে ভূষিত হওয়ায় ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের আনন্দ মিছিল মেহেরপুরের রানা ১৫ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার বাংলাদেশে মার্কিন বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী আইপি টিভির রেজিস্ট্রেশন নির্দেশিকা শিঘ্রই: তথ্যমন্ত্রী পুলিশ পরিদর্শক মাহবুবুর রহমান কাজলের কিছু স্মৃতির কথা মুক্তিযুদ্ধকালীন ঘটনাবহুল স্মৃতিগুলো ঐতিহাসিক মুজিবনগরে তুলে ধরা হবে–জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী দামুড়হুদায় নবনির্মিত মসজিদের ছাঁদ ঢালাই কজের শুভ উদ্বোধন আলমডাঙ্গায় ট্রেনের ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু ‘বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ’

আজ পহেলা ফাল্গুন বসন্ত ও  বিশ্ব ভালোবাসা দিবস

স্বপন কুমার রায়, খুলনা ব্যুরো প্রধানঃ

নব যৌবনের বার্তা বাহী ঋতুরাজ বসন্ত এসে গেছে আজ। রিক্ত শীতের পরেই ঋতুরাজ বসন্তের রাজকীয় আাবির্ভাব। জীর্ণ,জরা ঝরিয়ে দিয়ে নব যৌবনের বার্তাবহন করে নিয়ে আসেছে মধুমাস বসন্ত আজ। শীতপ আড়ষ্ট প্রকৃতি যেন বর্ণাঢ্য বর্ণমালা নিয়ে স্বাগত জানায় বসন্তকে।- আজি দক্ষিণা দুয়ার খোলা, এসো হে এসো, হে আমার বসন্ত এসো।” গ্রীষ্ম, বর্ষা, শরৎ,হেমন্ত আর শীতের পরে যাদুর স্পর্শ নিয়ে আসছে বসন্ত আজ। কনকনে শীত তখন পালিয়ে যায়। গ্রীষ্মের প্রখরতা নেই, বর্ষার কলো মেঘ নেই, শরৎ হেমন্তের সুন্দর ভুবনের তুলনায় বসন্ত তুমি বিজয়ী। বসন্ত এসেছে তাই গাছ গাছে সবুজ পাতার সমারোহ। বাতাবী লেবুর ফুল আর আম্র মুকুলের গন্ধ বাহী পাগল পারা বাতাস, মৌমাছির গুঞ্জন, কবির মনের জাগে ছন্দ আর গায়কের মনে জাগে গান, কোকিলের কুহুরব প্রকৃতিকে ডাক দেয় অফুরন্ত আনন্দের প্রাণ প্রাচুর্যে। বসন্ত নিয়ে লেখা হয়েছে অনেক গান, অনেক কবিতা। কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের ভাষায় বসন্তের শাশ্বত রূপটি তাই এমন- ‘ফুল ফুটুক, আর না-ই ফুটুক আজ বসন্ত’।বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিমের ‘বসন্ত বাতাস’ নিয়ে জনপ্রিয় একটি গান আছে। গানের শুরুটা ঠিক এ রকম- ‘বসন্ত বাতাসে সই গো বসন্ত বাতাসে, বন্ধুর বাড়ির ফুলের গন্ধ আমার বাড়ি আসে সই গো, বসন্ত বাতাসে’।বসন্ত যেমন আমাদের খুশির ঋতু; তেমনি বেদনারও বটে। ফাগুনে শিমুল আর কৃষ্ণচূড়ার লাল রঙ মনে করিয়ে দেয় বায়ান্নর ফাগুনের শহীদদের কথা। ফাল্গুন মনে করিয়ে দেয় ভাষা শহীদের রক্তের ইতিহাস।ফাগুনের এই সময় পলাশ, শিমুল গাছে দেখা দেয় আগুন রঙের খেলা। পাতার আড়ালে আবডালে লুকিয়ে থাকা বসন্তের দূত কোকিলের মধুর কুহুকুহু ডাক, ব্যাকুল করে তুলবে অনেক বিরোহী অন্তর। তাইতো কবির ভাষায়- ফুলের বনে ফুল ফুটেছে কোকিল গাহে তায় কিরণ কোলে লহর দোলে সলিল বয়ে যায়।”শীতের ধূসর প্রকৃতি একটি নতুন দিনের ইশারায় যে পোষাক দিচ্ছে তা স্পষ্ট ধরা পড়ে। আম জাম কাঁঠালের বনে মুকুলের সুঘ্রাণ,মৌমৌ মধুমাছি ব্যাকুল হয়ে বনে বনে ছুটে বেড়ায়। প্রকৃতির এই ঐশ্বর্য ঋতুরাজ বসন্তেরই দান। মানুষের জীবনেও সেই নতুন পাতার আহবান নতুন দুয়ার খুলে দেয়। কোথায় যেন নিয়ে যায় মোহন বাঁশির সুরে। শিমুল পলাশ কৃষ্ণচুড়া বাংলার পথে ঘাটে প্রান্তরে শোভা বর্ধন করে। দুর বন বনান্ত রক্তিম আভাস ছড়িয়ে জীবন সংগ্রামের কথা মনে করিয়ে দেয়। জীবন মানেই তো যুদ্ধ। প্রতি ক্ষণে ক্ষণে আমরা শিমুল পলাশের রক্তিম পাতায় ভাষা আন্দোলনের বীর শহীদদের স্বরণ করি। তাঁদের স্মৃতি আমাদের এগিয়ে নেয় প্রতিটি নতুন দিনে। তারা জীবন দিয়ে আমাদের জীবনে দিয়ে গেছে এই বসন্ত। তাই তাদের প্রতি রইল বিনম্র শ্রদ্ধা। তবে শেষ কোনো দিনও শেষ নয়। শুরু হয় নতুন দিনের। ঋতুরাজ বসন্ত তার বিপুল সৌন্দর্য, তার স্বভাব এবং প্রাণ প্রাচুর্যের মধ্যেও বেদনার রেশ রেঁখে সূচনা করে যায় নতুন দিনের। আসে নববর্ষ। বসন্ত তাই রাজ মহিমায় মহিমান্বিত। তাই বসন্ত ঋতুরাজ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT