সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৪:২১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
‘তলাবিহীন ঝুড়ি’র অপবাদখ্যাত আমাদের মাতৃভূমি, আজ এক ‘লড়াকু বাংলাদেশ’ চুয়াডাঙ্গার মা নার্সিংহোমে সিজারিয়ানের পর সদর হাসপাতালে নবজাতকের মৃত্যু চুয়াডাঙ্গার কার্পাসডাঙ্গায় শাফা কেমিক্যালে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে তৈরী হচ্ছে ভেজাল ডিটারজেন্ট তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনের মামলা ১৮ বিক্ষোভকারীর রক্তে ভিজল মিয়ানমারের রাজপথ ঝিনাইদহ হরিণাকুন্ডুতে ৭৫ বিঘা পানবরজ আগুনে পুড়ে ছাই করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে বাটাগুরবাসকা একটি কচ্ছপ ডিম পেড়েছে ২৭টি চুয়াডাঙ্গার কার্পাসডাঙ্গায় বিজ্ঞানসম্মত পদ্ধতি ছাড়াই তৈরী হচ্ছে ভেজাল ডিটারজেন্ট বিপুল ভোটে শৈলকুপায় নৌকা প্রার্থীর বিজয় ঝিনাইদহ হরিণাকুন্ডু পৌরসভার নব-নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিরগণের দায়িক্ত হস্তান্তর ও গ্রহণ অনুষ্ঠিত 

প্রথম টিকা নেওয়া রুনুকে সাহসী বললেন প্রাধানমন্ত্রী

দেশের করোনা টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধনের পর তা প্রত‌্যক্ষ করার পাশাপাশি যারা টিকা নিয়েছেন তাদের মানসিকভাবে উৎসাহ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) এই কার্যক্রম গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ‌্যমে যুক্ত ছিলেন তিনি।

কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু বেরুনিকা কস্তা যখন প্রথম হিসেবে টিকা নিচ্ছিলেন তখন প্রধানমন্ত্রী তার কাছে জানতে চান, ভয় লাগছে কি না? জবাবে রুনু হেসে বললেন, ভয় লাগছে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘রুনু ভয় পাচ্ছো না? খুব সাহসী তুমি।’ টিকা নেওয়ার পর হাততালি দিয়ে অভিনন্দন জানান তিনি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী রুনুকে উদ্দেশ‌্য করে বলেন, ‘তুমি ভালো থাকো। আরো রোগীর সেবা করো। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।’

এরপর টিকা নেন হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. আহমেদ লুৎফুল মোবেন, এ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা, মতিঝিল বিভাগের ট্রাফিক পুলিশ সদস্য মো. দিদারুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ।

প্রধানমন্ত্রী অধ‌্যাপক নাসিমা সুলতানার কাছে জানতে চান, ‘নাসিমা নার্ভাস লাগছে না তো?’

মো. দিদারুল ইসলাম যখন টিকা নিতে আসেন তখন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পুলিশ বাহিনী এই করোনায় এত সার্ভিস দিয়েছে যা বলার মতো না। অনেক সাহসী ভূমিকা দেখিয়েছে।’ এ সময় তিনি দিদারুল ইসলামের কাছে জানতে চান, ‘ভয় লাগছে না তো। ঠিক আছো।’ তখন তিনি বলেন, জ্বি। ঠিক আছি।

সবশেষে এম ইমরান হামিদকে টিকা নেওয়ার সময় বলেন, ‘ইমরান ভয় পাচ্ছো?’

পরে প্রধানমন্ত্রী টিকা নেওয়া সবাইকে আন্তরিক ধন‌্যবাদ জানিয়ে বলেন, যারা ভ‌্যাকসিন নিলেন এবং যারা দিলের তাদের ধন‌্যবাদ ও সুস্বাস্থ্য কামনা করি। সারা দেশে এই দ্রুত এই কার্যক্রম শুরু হবে বলেও জানান তিনি। এ সময় ভারত সরকারকে ধন‌্যবাদ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, যখনই আমরা ভ‌্যাকসিন দিতে শুরু করবো ৩ কোটি ৪ লাখ ডোজ ভ‌্যাকসিন আসতে শুরু করবে। সবার সহযোগিতা চাই। সব যাতে সুষ্ঠুভাবে হয়- নজর রাখার আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বুধবার বাংলাদেশের জন‌্য ঐতিহাসিক দিন হলো। বিশ্বের অনেক দেশই শুরু করতে পারেনি। আমরা পেরেছি। করোনা পরিস্থিতি থেকে উত্তরণ ঘটানোর প্রত‌্যয় ব‌্যক্ত করেন তিনি।

সূত্র:  পূর্বপশ্চিমবিডি

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT