রবিবার, ২৫ Jul ২০২১, ০৭:৪২ অপরাহ্ন

কৃষকের উৎপাদিত পণ্য পরিবহনে রেল বিভাগের উদ্যোগ যুগান্তকারী -এমপি টগর

জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা)প্রতিনিধি:

জীবননগর উথলী রেলষ্টেশনে কৃষকের কৃষিজাত পণ্য পরিবহনে বাংলাদেশ রেলওয়ে নতুন সংযোজন অত্যাধুনিক লাগেজ ভ্যান চালু করতে অংশীজন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকাল ৪টায় বাংলাদেশ রেলওয়ের উর্ধতন কর্মকর্তা, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় কৃষকদের সাথে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।
অংশীজন সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চুয়াডাঙ্গা ২আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগর টগর বলেন, জননেন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ কে উন্নয়নের রোল মডেল গড়তে নানা মুখি পদক্ষেপ নিয়েছেন। দেশের সার্বিক উন্নয়নের পাশাপাশি কৃষকের উৎপাদিত পণ্য পরিবহন সহজতর করতে সড়ক পথের পাশাপাশি রেল পথে পণ্য পরিবহনে যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছেন সরকার। রেল পথে পণ্য পরিবহনে নতুন মাত্রা যোগ হলে কৃষক রাজধানী ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য স্থানে সহজেই বাজারজাত করতে পারবে।
বাংলাদেশ রেলওয়ে(পশ্চিম)মহা ব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন, চুয়াডাঙ্গা-২আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর।
বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ রেলওয়ের মহা পরিচালক শামছুজ্জামান, বাংলাদেষ রেলওয়ে রাজশাহীর চীফ কমান্ডেন্ট আর এন বি (পশ্চিম) আশাবুল ইসলাম, চীফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার (পশ্চিম) আহসানউল্যা ভুঁইয়া, বাংলাদেশ রেলওয়ে (পাকশী) বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।
বাংলাদেষ রেলওয়ের মহা ব্যবস্থাপক শামছুজ্জামান বলেন, কৃষকের উৎপাদিত পণ্য সহজে পৌঁছানো ও পরিবহন খরচ কমাতে বাংলাদেশ রেলওয়ে শীতাতাপ নিয়ন্ত্রিত অত্যাধুনিক নতুন ১০০শ’ ২৫ টি লাগেজ ভ্যান সংযোজন করতে যাচ্ছে। মিটার গেজের ৭৫টি লাগেজ ভ্যান ও ৫০ টি ব্যাডগেজ লাগেজ ভ্যান সংযুক্ত হবে। কাচা মাল পরিবহনের জন্য ১০টি মটর ভ্যান ও ১০টি স্পেশাল কার কেরিয়ার রেল বহরে সংযোজন করা হয়েছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলের উৎপাদিত কৃষি পণ্য যেমন শাকসবজি, মৌসুমী ফল, ফুল, মাছ, মাংশসহ পচনশীল অন্যান্য দ্রব্য রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বড় শহর গুলোতে লাগেজ ভ্যানের মাধ্যমে পৌছানো সম্ভব। আমাদের জানা মতে ঢাকাতে যাওয়া কাঁচা মালের ৩০ শতাংশ যশোর, ঝিনাইদহও চুয়াডাঙ্গা অঞ্চল থেকে যায়।
এ কারণে কৃষকের পণ্য পরিবহন সহজতর এবং নির্দিষ্ট সময়ে পৌঁছানোর লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় রেল বিভাগ লাগেজ ভ্যান চালুর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।
অংশীজন সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, জীবননগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মুনিম লিংকন, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার চুয়াডাঙ্গার উপ-পরিচালক জি এম জামিল সিদ্দিকী, বাংলাদেশ রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলী (পশ্চিম) মাসুদ আল ফাত্তাহ ভুঁইয়া, বাংলাদেশ রেলওয়ের সিও পিএম (পশ্চিম) শহিদুল ইসলাম, প্রধান যান্ত্রিক প্রকৌশলী কুদরতি খোদা, প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (পশ্চিম) আহসানুল্লাহ ভুঁইয়া, প্রধান সংকেত টেলি যোগাযোগ প্রকৌশলী সুনিল কুমার হালদার, প্রধান বৈদ্যুতিক প্রকৌশলী শফিকুর রহমান, উথলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান, সম্পাদক সোহেল আহম্মেদ প্রদীব, আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার, রায়পুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মির্জা তাহাজ্জত হোসেন, বিশিষ্ট কৃষি উদ্দোক্তা সাংবাদিক আবজালুর রহমান ধীরু প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT