মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১:২৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম
মেহেরপুর জেলা ছাত্রদলের প্রতিকী অনশন পালন মেহেরপুরে গাঁজা ও বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার,আটক-১ সিআইপি নির্বাচিত হলেন দিলীপ কুমার আগরওয়ালা জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের কার্যনির্বাহী পরিষদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন এসএসসি-২০১৩ ও এইচএসসি-২০১৫ ব্যাচের পুনর্মিলনী ১১ ফেব্রুয়ারি: চলছে রেজিস্ট্রেশন মেহেরপুরের গাংনীতে ১২ কেজি গাঁজাসহ আটক-৩ চাঁপাইনবাবগঞ্জ দাফনের পাঁচমাস পর কবর থেকে উত্তোল করা হলো লাশ দর্শনায় “যুব সাহায্য সংস্থা ব্যাচ-৮৭”র কফি হাউজের উদ্বোধন ভেড়ামারা থানা পুলিশের অভিযানে বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত ১২ জন আসামী গ্রেফতার গাংনীতে ডি বি পুলিশের হাতে দুই পলাতক আসামি আটক

বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদ না নিয়েই ব্যাংকিং কার্যক্রম চালুর প্রস্তুতি : এসটিসি ব্যাংকের চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার:

চুয়াডাঙ্গা একাডেমি মোড়ে সারা ভবনের তৃতীয় তলায় স্মল ট্রেডার্স কো-অপারেটিভ (এসটিসি) ব্যাংক লিমিটেড চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখা কার্যক্রম উদ্বোধনের আগেই বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। উদ্বোধন অনুষ্ঠানের কিছু আগেই চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সেখানে অভিযান চালিয়ে উদ্বোধন অনুষ্ঠান এবং ব্যাংকের কার্যক্রম না চালানোর আদেশ দেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন না থাকা এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে না পারার কারণে এই আদেশ দেয়া হয় বলে জানান ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সহকারী কমিশনার সুরাইয়া মমতাজ।
জানা গেছে, মঙ্গলবার বেলা ১১ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা শহরের একাডেমি মোড়ের সারা ভবনের তৃতীয় তলায় আনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এসটিসি ব্যাংক নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ৮১তম শাখার উদ্বোধনের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। অনুষ্ঠানের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছিলেন ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ইতোমধ্যে অতিথিদের অনেকেই উপস্থিত হন। ঠিক বেলা ১১ টা বাজার কিছু আগেই ব্যাংকে উপস্থিত হন জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুরাইয়া মমতাজ। তিনি ব্যাংকটির উদ্বোধন অনুষ্ঠানসহ সকল কার্যক্রম বন্ধ করার মৌখিক আদেশ দেন। ব্যাংকটির ব্যানার নামিয়ে অতিদ্রুত জেলা প্রশাসকের নিকট দেখা করার জন্য বলে আসেন তিনি।

এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্টেট সুরাইয়া মমতাজ বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদনসহ লিগ্যাল কোনো কাগজপত্র ছাড়াই এসটিসি ব্যাংকের উদ্বোধন করা হচ্ছিলো। সমবায় অধিদপ্তর থেকে অনুমতি নেয়া প্রতিষ্ঠান ব্যাংক হিসেবে চলতে পারে না। আপাতত আমি উদ্বোধন অনুষ্ঠানসহ সকল কার্যক্রম বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছি। তাদেরকে সকল কাগজপত্র নিয়ে জেলা প্রশাসক স্যারের সাথে দেখা করার জন্য বলেছি।
এদিকে, এ ঘটনার পরও উদ্বোধন স্থলে বেশ কয়েকজন মানুষকে দেখতে পাওয়া গেছে। প্রায় এক ঘণ্টা পর এসটিসি ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান পরিচয় দানকারী খালিদ হাসান লিটু, পরিচালক (প্রশাসন) মির্জা সোহাগ মামুন, সিনিয়র জিএম এন্ড ডিভিশনাল ইনচার্জ খুলনা আরাফাত নজীব ও চুয়াডাঙ্গা শাখার ব্যবস্থাপক শেখ পিন্টু সেখানে উপস্থিত হন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নিদের্শ অমান্য করে, মঞ্চে তাঁরা একটি সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেন। আলোচনায় এসটিসি ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান পরিচয় দানকারী খালিদ হাসান লিটু বলেন, আমাদের ভুল হয়েছিলো যে, চুয়াডাঙ্গার ডিসি মহোদয়কে অবগত করানো হয় নাই। যার কারণে একটু সমস্যা হয়েছে। ওনার সাথে আমরা আলোচনা করে পুনরায় উদ্বোধন কার্যক্রমের বিষয়ে জানাবো।
এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, সমবায় ব্যাংকের আইন অনুযায়ী সেখান থেকে অনুমোদন নিয়ে কেউ ব্যাংক নামে কার্যক্রম করতে পারবে না। বিষয়টি আমার নজরে আসায় আমি কার্যক্রম বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছি। তাদেরকে কাগজপত্রসহ অফিসে আসার জন্য বলেছি। তাছাড়া, আমি জেলা সমবায় অফিসারকে এ বিষয়ে তদন্ত করার জন্য দায়িত্ব দিয়েছি। সবকিছু দেখে যাচাই বাচাইসহ প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত জানাবো।
এদিকে, এসটিসি ব্যাংক নামের এই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলায় নানা রকম অভিযোগ পাওয়া গেছে। বেশ কয়েকটি জেলা ও উপজেলা শহরে তাদের অফিস সিলগালাসহ কার্যক্রমকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও, চাকরি দেওয়ার নাম করে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগও আছে এসটিসি ব্যাংকের বিরুদ্ধে। মূলত বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন না নিয়ে ও সমবায় অধিদপ্তরের বিধিবিধান লঙ্ঘন করে অর্থ লেনদেন করার অভিযোগ আছে তাঁদের বিরুদ্ধে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি