শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:১২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
নায়িকা বুবলীকে হত্যাচেষ্টা, অল্পের জন্য রক্ষা মুশতাকের মৃত্যুর প্রতিবাদ মিছিলে পুলিশের লাঠিপেটা, আহত ১৫ অন্যের বিশ্বাসের প্রতি আঘাত করে লিখতেন মুশতাক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুখবর জানাতে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সবার নিরাপত্তার জন্য: তথ্যমন্ত্রী দামুড়হুদার দেউলী গ্রামের প্রফেসারপাড়ায় মসজিদ’র নির্মাণ কাজ উদ্বোধন মেহেরপুর কালাচাঁদপুরে মুন্সী মেহেরুল্লাহ (রহ,,)বাৎসরিক ওরস অনুষ্ঠিত দামুড়হুদার মুক্তারপুর যুব সমাজ ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট’র ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণ  মুজিবনগর আনন্দবাস গ্রামের ৮নং ওয়ার্ডে কর্মী সমাবেশ ‘ঝিনাইদহে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার’ উদ্বোধন

কেরুতে আবারও ২ সহকারী এজেন্ট পদে নিয়োগ পাওয়ার জন্য মোটা অংকের টাকা নিয়ে দৌঁরঝাঁপ

দর্শনা (চুয়াডাঙ্গা) থেকে, মোস্তফা কামাল শ্রাবন,

 ডিষ্ট্রলারী বিভাগের এজেন্ট হতে পারলেই সোনার হরিণ হাতে পাওয়া যায়। কয়েক বছরে নাকি কোটিপতি হওয়া যায়। গত ২/৩ দিন আগেই ২ জন অন্য বিভাগ থেকে পণ্যাগার এজেন্ট হয়েছে আরও ২ জনকে করার জন্য জোর তৎপরতা চলছে বলে জানা গেছে। দর দামে সমঝোতা হলেই ভাগ্যবান দুজন কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন পূরন করতে পারবে। তবে এজন্য প্রার্থীকে কমপক্ষে ১৫ লক্ষ টাকা গুনতে হবে। যে টাকা একটি বিশেষ মহলকে দিতে হবে। খোঁজা হচ্ছে সেই সলভেন্ট পার্টিকে। এজেন্ট বাণিজ্য এখন মোটামুটি লাভজনক একটি ব্যবসা। যেহেতু চিনিকলে নিয়োগ বন্ধ থাকায় নিয়োগ বানিজ্যে ভাটা পড়েছে। ২/১ দিনের মধ্যে ২ জন সৌভাগ্যবান পৌছে যাবে কোটি টাকা ইনকামের পথে। আর কিভাবে অতি অল্প সময়ে কোটিপতি হওয়া যায় সে ব্যাপারে গতকালের প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছি। মদের দামে পানি বিক্রি করে এজেন্টরা কোটিপতি হয়েছে এবং হচ্ছে। এদিকে চিনিশিল্পের চিনি উৎপাদনে লোকসানের কারনে চলতি মাড়াই মৌশুমে ৬ টি চিনিকলের উৎপাদন বন্ধ করেছে সরকার। এবার কোন চিনিকলই নতুন করে চাষিদের আখ চাষে উদ্ভুদ্ধ করতে কৃষি উপকরণ ঋণ প্রদান করেনি সেহেতু ২০২০-২১ আখ রোপণ মৌশুমে কাংখিত পরিমান জমিতে আখ রোপণ হচ্ছে না ফলে আগামি মাড়াই মৌশুমে প্রয়োজনীয় আখ না পাওয়ার কারণে আরো কয়েকটি চিনিকল বন্ধ হতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। যে কারনে ক্ষমতাধর নেতারা তাদের নিজেদের কিংবা নিকটাত্নীয়দের ভাল কোন চিনিকলে পোষ্টিং করাতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে। একমাত্র কেরু চিনিকল লাভজনক হওয়ায় বন্ধ চিনিকলের স্থায়ী শ্রমিক – কর্মচারীদের চালু চিনিকলে সমন্বয়ের চিন্তা ভাবনা চলছে বলে ধারনা করা হচ্ছে এবং অচিরেই এই প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে মনে হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় কেরু চিনিকলের ফ্যাক্টরী বিভাগের চুক্তিভিত্তিক একজন শ্রমিককে ডিষ্ট্রিলারী বিভাগে গতকাল বদলী করা হয়েছে। স্থানীয় রাজনৈতিক নেতার পুত্র ঐ শ্রমিককে স্থায়ী শুন্য পদের অনুকুলে তার পদায়ন করা হয়েছে। সম্প্রতি ২ জন সহকারী এজেন্ট করা এবং একজনের ডিপার্টমেন্ট বদলী নিয়ে কেরু ক্যাম্পাসে, চা দোকানে আলোচনা- সমালোচনা তুঙ্গে। কেরু ডিষ্ট্রিলারী বিভাগ লাভজনক হওয়ায় এখানে কর্মরত চুক্তিভিত্তিক শ্রমিক কর্মচারীদের চাকরি বহাল থাকবে এমন আশায় অনেকেই ডিষ্ট্রিলারী বিভাগে বদলীর চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে শোনা যাচ্ছে। আর এই বদলী প্রক্রিয়া সফল হলেই বানিজ্য ভালই হবে। সকল চিনিকলেই চুক্তিভিত্তিক / কানামনা শ্রমিকের সংখ্যা নেহায়েত কম নয়। দীর্ঘদিন সুগার কর্পোরেশনে নিয়োগ বন্ধ থাকার কারনে প্রয়োজনীয় জনবল হ্রাস পেয়েছে যে কারনে চুক্তিভিত্তিক বা কানামনা শ্রমিকদের দিয়ে শুন্য পদগুলোতে কাজ করানো হচ্ছে। গুরুত্বপূর্ণ কিছু শুন্য পদেও সেখানে দৈনিক হাজিরার লোক দিয়ে কাজ করানো হচ্ছে। জনশ্রতি আছে এবার যে ৬ টি চিনিকল বন্ধ আছে সেসব চিনিকলে স্থায়ী শ্রমিক কর্মচারীদের চালু চিনিকলে যোগ্যতা অনুযায়ী বদলী করা হবে। ফলে চালু চিনিকলে কর্মরত চুক্তিভিত্তিক বা কানামনা শ্রমিক কর্মচারীকে বাদ দেয়া হবে। দীর্ঘদিন যারা চুক্তিভিত্তিক বা কানামনা হয়ে যারা কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছিল তাদের হতাশায় দিন কাটছ।

উদ্ধর্তন কতৃপক্ষ তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেবেন বলে মনে করেন সচেতনমহল

 

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT