শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন

দামুড়হুদায় এই প্রথম যান্ত্রিক ই-পদ্ধতিতে ধান চাষ শুরু

ষ্টাফ রিপোর্টার:

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় এই প্রথম খামার যান্ত্রিক ই’ (সমন্নয়) পদ্ধতি ধান চাষ শুরু করা হয়েছে। দামুড়হুদার হাউলি মাঠে এই পদ্ধতিতে ধান চাষ করা হবে। ইতোমধ্যে তিন ধরনের পদ্ধতিতে বীজ তলা ও চারা তৈরীর কাজ সম্পন্ন হয়েছে।এই পদ্ধতিতে চাষ করে চাষিরা ভালো লাভবান হবে বলে আশা করছেন কৃষি বিভাগ। দামুড়হুদায় এই প্রথম যান্ত্রিক ই’ পদ্ধতিতে ধান চাষ শুরু দামুড়হুদার হাউলি মাঠে যান্ত্রিক ই’ পদ্ধতিতে বীজ তলা
কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে,দামুড়হুদা উপজেলা সদরের অদুরে হাউলি মাঠের ১৫০ বিঘা জমিতে হাইব্রিড জাতের এই ধান চাষ করা হবে।এই পদ্ধতিতে চাষিরা অর্ধেক খরচে তাদের ধান ঘরে তুলতে পারবে।
দামুড়হুদা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান জানান, দিন দিন আবাদী জমির পরিমাণ কমে যাচ্ছে।সেইসাথে কৃষি শ্রমিকের সংখ্যা হ্রাস পাচ্ছে। ফলে কৃষিতে শ্রমিকের মজুরি বেড়ে যাচ্ছে, তাতে করে ধানের উৎপাদন খরচ বেড়ে যাচ্ছে।এই কারনে ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের ফার্ম মেশিনারি এন্ড পোস্টহারভেস্ট টেকনোলজি বিভাগ যান্ত্রিক পদ্ধতিতে ধান চাষাবাদের লক্ষ্যে খামার যন্ত্রপাতি গবেষণা কার্যক্রম বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের আওতায় বিশেষ কার্যক্রম হাতে নিয়েছে।ধানের উৎপাদন খরচ কমাতে দেশের ৪৯২ উপজেলার মধ্যে ৬১টি উপজেলায় প্রথম বারের মত এই পদ্ধতিতে চাষ করা হচ্ছে।
এর মধ্যে দামুড়হুদা উপজেলার হাউলি মাঠে এক নম্বর সেচ পাম্পের আওতায় দামুড়হুদা কৃষি অফিসের তত্বাবধানে ১৫০ বিঘা জমিতে ধান রোপনের জন্য ২বিঘা জমিতে তিন ভাগে সাধারনত ধান ছিটিয়ে, ট্রে-তে ও পলিথিনের উপর মাটি দিয়ে বীজ তলা তৈরীর কাজ শেষ হয়েছে।ধান রোপনের জন্য জমি তৈরীর কাজ চলছে। রাইস ট্রান্সপ্লান্টার মেশিনের মাধ্যমে ধান রোপন করা হবে ও কম্বাইন হারভেষ্টার মেশিনের মাধ্যমে কাটা ও ঝাড়াই করা হবে। সাধারন ভাবে ধান চাষে বীজ তলা,জমি তৈরী,সার সেচ,বালাই নাশক ও শ্রমিক খরচ মিলিয়ে যেখানে বিঘাপ্রতি জমিতে খরচ হয়ে থাকে ১২হাজার থেকে ১৫হাজার টাকা। আর এই খামার যান্ত্রিক ই’ (সমন্নয়) পদ্ধতিতে হাইব্রীড ধান রোপন,কাটা ঝাড়াইসহ প্রায় ৬ থেকে ৭হাজার টাকা খরচ করে কৃষকরা তাদের চাষকৃত ধান ঘরে তুলতে পারবে বলে আশা করা হচ্ছে।ফলে চাষীরা ভালো লাভবান হবে।
যশোর অঞ্চল কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক পার্থ প্রতীম সাহা,চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ পরিচালক আলি হাসান,দামুড়হুদা উপজেলা কৃষি অফিসার মনিরুজ্জামান ও চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের কৃষি প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন বীজ তলা পরিদর্শন করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT