শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ১১:১২ অপরাহ্ন

শিরোনাম
ভেড়ামারা থানা পুলিশের অভিযানে বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত ১২ জন আসামী গ্রেফতার গাংনীতে ডি বি পুলিশের হাতে দুই পলাতক আসামি আটক গাংনীতে শীতবস্ত্র বিতরণ করোনা প্রতিরোধে ৬ দফা নির্দেশনা জারি করে প্রজ্ঞাপন সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা দর্শনায় শিক্ষার্থীদের মাঝে শীতবস্ত্র প্রদান “ভালোবাসার বন্ধন দর্শনার করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে থাকায় ভেড়ামারা উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের তৎপরতা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকের রোগ মুক্তি কামনায় চুয়াডাঙ্গায় সুবিধা বঞ্চিতদের মাঝে খাবার বিতরণ দর্শনা থানা সেচ্ছাসেবক দলে আয়োজনে দোয়া ও মিলাদ রাতের আধারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১৩ টি পরিবারের ৫০ ঘর পুরে ছাই

চুয়াডাঙ্গায় ছেলের উপর অভিমান করে মায়ের বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা

ষ্টাফ রিপোর্টার:

ছেলের উপর অভিমান করে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন এক মা।  রোববার চুয়াডাঙ্গা সকালে চুয়াডাঙ্গা শহরতলীর দৌলতদিয়াড়ে এ ঘটনা ঘটে। অসুস্থ অবস্থায় ওই নারীকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে। পরিবারের অমতে ছেলে পালিয়ে বিয়ে করায় তিনি ছেলের প্রতি অভিমান করেন।  রোববার তিনি বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।
বিষপানে আত্মহত্যাকারীর স্বামী চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার সীমান্ত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোজাফ্ফর আলী ওরফে জহুরুল ইসলাম জানান, আমার ছেলে শোভন মিয়ার সাথে আমার এক প্রাক্তন ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে বেশ কিছু ধরে। বিষয়টি আমি জানতে পারলে ছেলেকে পড়াশোনা শেষ করার জন্য তাগিদ দিই। কিন্তু গত ১৫ দিন আগে হঠাৎ করেই তাঁর সে (শোভন মিয়া) বাড়ী থেকে রাগ করে চলে আসে। অনেক খোজাখুজি করার পরও তেমন কোনো সন্ধান পাওয়া যায় না। তবে, পরিবারের এক সদস্যের সাথে শোভনের মাঝে মাঝে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কথা হচ্ছিল। হঠাৎ, শোভন জানায় সে বিয়ে করেছে। তারপরও, আমরা শোভন কোথায় আছে, তেমন কোনো সন্ধান পাইনি।

এদিকে, বিষয়টি নিয়ে আমার পরিবার ও বিশেষ করে আমার স্ত্রী বেশ উদ্বিগ্ন ছিলো। গতকাল রোববার সকালের দিকে আমি স্কুলে আসার পর আমার স্ত্রী হঠাৎ ফোন করে বলে, আমাকে ক্ষমা করে দিও। আমি তৎক্ষণাৎ দ্রুত বাসায় যেয়ে দেখি সে বিষ পান করেছে। আমি দ্রুত তাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করি। বর্তমানে তাঁর অবস্থা ভালো। এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছড়ানো তাঁর পারিবারিক কলহের বিষয়ে জানতে চাইলে, তিনি বলেন ওই ধরনের কোনো ঘটনা নেই। বিষয়টি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য প্রণোদিত। তাছাড়া, আমার ছেলে শোভন মিয়া বর্তমানে তাঁর চিকিৎসাধীন মায়ের পাশে আছে। ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ এ ধরনের গুজব ছড়াচ্ছে।
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. সোহানা আহমেদ বলেন, এক নারী বিষপান করে মুমুর্ষু অবস্থায় সকালে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আসেন। প্রথমে তার শরীরের পাকস্থলী থেকে সেটি ওয়াশ করা হয়েছে। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি