বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৪৮ পূর্বাহ্ন

মেহেরপুরের বারাদী হাটে স্বল্প আয়ের মানুষের শীতের কাপড় কেনায় ব্যস্ত

মেহেরপুর বারাদী থেকে  কামাল হোসেন খাঁন :

দিনদিন শীতের প্রকপ বাড়ছে। সেই সাথে শীতের পোষাক কেনার ব্যস্তহয়ে পড়েছে। গত কয়েকদিন যাবত শীতের তীব্রতা কিছুটা বাড়ার সাথে সাথে শীতের হাত থেকে রক্ষা পেতে ফুটপাতের ভাসমান কাপড়ের দোকানগুলোতে ভীড় জমাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। বিভিন্ন মার্কেট কিংবা রাস্তার পাশে এসব রেডিমেট কাপড়ের দোকানে উপচে পরা ভীড় করছেন তারা। মেহেরপুর সদর উপজেলার বারাদী হাট বাজারে বিভিন্ন দোকানে ও আশপাশে বিভিন্ন রাস্তার পাশে ভাসমান রেডিমেট এসব দোকানীদের জমে উঠেছে বেচা কেনার উৎসব। লক্ষ্য করা গেছে, ফুটপাতের দোকানগুলোতে সস্তায় বিভিন্ন ধরনের শীতের কাপড় বিক্রি করা হচ্ছে। মোটা গেঞ্জি, সোয়েটার, হাতা ও পা মোজা, টুপি, উলের চাদর, কম্বল ইত্যাদি কেনাবেচা হচ্ছে। ছোট বড় সব ধরনের শীতের পোষাক পাওয়া যাচ্ছে এসব দোকানে। সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার নাগালে পছন্দের শীতের কাপড় কিনতে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার শতশত নারী পুরুষ ভীড় জমাচ্ছেন এখানে। দেখা গেছে, ১৫০ থেকে ৩০০ টাকার মধ্যে (সাইজ অনুযায়ী) কাপড়ের জ্যাকেট ও মোটা সোয়েটার বিক্রি করা হচ্ছে। প্রায় শতাধিক ভাসমান দোকান রয়েছে এখানে। বারাদী হাট বাজারে ফুটপাতে শীতের গরম কাপড় কিনতে ভিড় নিম্নআয়ের মানুষ এরা। বেশ কয়েকজন ক্রেতা বলেন, এখানেও কমদামে শীতের জামা কাপড় পাওয়া যাচ্ছে। শীতের প্রায় সবধরনের পোষকই এখানে আছে। কিছুটা কমদামে পছন্দের এসব গরম কাপড় কিনতে পেরে তারা আনন্দ প্রকাশ করেন। এসময় ভাসমান কয়েকজন দোকানি বলেন, তারা ঢাকার বিভিন্ন পাইকারী মার্কেট থেকে শীতের জামা কাপড় কালেকশন করেন। কিছুটা কমদামে ভালমানের এসব শীতের পোষাক বিক্রি করতে পারছেন তারা। প্রতিদিনই তারা নিত্য নতুন শীতের বিভিন্ন গরম কাপড় কালেকশন করছেন। শীতের প্রকপ বাড়ায় তাদের পোষাক বিক্রির ব্যস্ততা বেড়েছে। খোঁজ খবর নিয়ে জানা যায়, বারাদী বাজার ও এর আশপাশ ছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজার ও জনসমাগম এলাকায় শতশত ভাসমান এসব দোকানে শীতের গরম পোষাক কিনতে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ ভীড় জমাচ্ছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি