শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম
কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় কৃষকের লাশ উদ্ধার গাংনীতে এক কৃষককে ফাঁসানোর অভিযোগ আজ ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস ॥ সীমিত পরিসরে পালনের প্রস্তুতি উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান টুপি সহিদুলের কিল-ঘুষিতে বৃদ্ধ ইস্রাফিল নিহত জুয়ার আসর থেকে নগদ টাকা-জুয়াখেলার সরঞ্জামসহ গ্রেফতার-২ বেগমপুরের হরিশপুর সড়কের গাছ চুরিকালে চোর পাকড়াও দামুড়হুদার ডুগডুগী কাঁচাবাজার তদারকী করলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা চুয়াডাঙ্গায় করোনা পরিস্থিতিতে ভ্রাম্যমাণ সবজি ভ্যান কার্যক্রমের উদ্বোধন গাংনীর কাজীপুরে অগ্নিকাণ্ডে ৪টি বসতবাড়ী ভস্মীভূত ॥ ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি ঝিনাইদহের গণিত-পদার্থ বিজ্ঞানের এক সময়ের মেধাবী ছাত্রের দিন কাটে পথে পথে

পৃথিবী কেন্দ্রিক বিশ্বতত্ত্ব মডেলের সত্যতা যাচাইয়ের আহ্বান গবেষক আমানত উল্লাহর

হাসেম রাজ : দৈনিক আমাদের চুয়াডাঙ্গা ডটকম

চুয়াডাঙ্গার আলোমডাঙ্গা উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের গবেষক আমানত উল্লাহর ২৫ বছর গবেষণার পর আবিষ্কৃত হলো পৃথিবী কেন্দ্রীক বিশ্বতত্বের মডেল। যা দ্বারা তিনি প্রমাণ করতে চেয়েছেন পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোওে না, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে। তার আবিস্কৃত বিশ্বতত্বের মডেল দ্বারা সৌরজগতের সাথে পৃথিবীর যে সম্পর্ক তার সঠিক বিষয় সুনিপুনভাবে উঠে এসেছে। যা ৪‘শো বছর ধরে জেনে আসা উক্তিকে মিথ্যা প্রমাণ করতে চলেছে।
গবেষক আমানত উল্লাহর গবেষণার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে গবেষণা করে আমি খুঁজে বের করি পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না, সূর্য পৃথিবীর চারদেকে ঘোরে। তবে এই মডেলটি আবিস্কার করতে যেয়ে আমার জীবনের প্রিয় অনেক কিছুই হারিয়ে গেছে। যা কখনো ফিরে পাবার নয় তবুও জীবনের সে সবকিছু বিসর্জন দিয়ে আমি ডুবে ছিলাম পৃথিবী কেন্দ্রীক বিশ্বতত্বের মডেল আবিস্কারের কাজে। যে সময়গুলোর মধ্যে ঘটে গেছে জীবনের অনেক ঘটনা যা আমার চোখেই পড়ে নি।
কারণ আমি পৃথিবী কেন্দ্রীক বিশ্বতত্বের মাঝে হারিয়ে গিয়েছিলাম। তবে আমার মডেলের মাধ্যমে যে বিষয়টি তুলে ধরেছি তা বৃন্দুমাত্র ভুল নেই। তবে বিশ্ববাসী কি আমার গবেষণার ফলে আবিস্কৃত মডেলটি একটু যাচায় করবে? মৃত্যুর আগে আমি কি দেখে যেতে পারবো আমার গবেষণার সাফল্য? কেউ কি কোন মুল্য দিবে? আমি মৃত্যুর আগে শুধু একটিবার দেখে যেতে চাই যারা মিথ্যা তত্ত্ব দিয়ে যে সম্মাননা ভোগ করে যাচ্ছে আর আমরা সেই মিথ্যাকেই স্যালুট করে চলেছি, তার অবসান। আমাকে একটি বার সেই সকল বিজ্ঞানীদের সম্মুখীন করা হোক। তাহলে আমার ২৫ বছরের হারিয়ে যাওয়া সকল বেদনা এক নিমিষেয় শেষ হয়ে যাবে।
তিনি বলেন, আমি আমার মডেলের মাধ্যমে প্রমাণ করে দিতে চাই পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে। আমার অর্থ সম্পদ বলতে কিছুই নেই, আছে শুধু বুকভরা সাধনা ও ভালোবাসা যা মানুষের কল্যাণে সমাহিত করতে পারলে নিজেকে ধন্য মনে করবো।
তাই মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর সু-বিচক্ষণ দৃষ্টি যদি আমার মতো ক্ষুদ্র একজন মানুষের উপর পড়ে তাহলে হয়তো আমি উপহার দিতে পারবো পৃথিবী কেন্দ্রীক বিশ্বতত্বের এক অন্যতম বিষয় যা পৃথিবী ও সৌরজগতের সম্পর্কের বাস্তব চিত্র সম্বলিত একটি মডেল। যা দ্বারা পৃথিবীতে যা ঘটছে এবং আগামীতে যা ঘটবে। শুধু তাই নয় পৃথিবী যদি সূর্যের চারদিকে ঘুরতো, তাহলে যে গুলো কখনোই ঘটার কথা না, সেগুলো ঘটছে, আর যেগুলো ঘটার কথা সেগুলো ঘটছে না তার কিছুটা নমুনা। আমার বিশ্বতত্বের মডেলের মাধ্যমে তা নিখুতভাবে দেখা।
এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পাইকপাড়ার আমানত উল্লাহ অসহায় দরিদ্র একজন মানুষ যার কিছুই নেই। এমনকি ঐরসজাত কোন সন্তানও নেই। থাকার মতো একটি ছোট্ট কুটির যা তার নিজের নয়। ভাগিনার বাড়ীতে আশ্রিত। বিশ্বতত্ত্বের মডেল আবিস্কার করতে যাওয়ার ফলে তার স্ত্রী অনাহারে, অনিদ্রায়, বিনা চিকিৎসায় পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন। তবুও তিনি সকল বেদনা বুকে নিয়ে পৃথিবী কেন্দ্রীক বিশ্বতত্ত্বের মডেল নিয়েই পড়ে আছেন। সত্য উদ্ঘাটন করতে জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে তিনি প্রমাণ করে যেতে চান পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT