বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ১১:৪০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে ঝিনাইদহের ৬টি পৌর এলাকায় বিশেষ বিধি নিষেধ জারী সাংবাদিক জনির মুক্তির দাবিতে মেহেরপুরে মানববন্ধন আজ প্রিয় ঋতু বর্ষার প্রথম দিন চুয়াডাঙ্গায় স্বাস্থ্য সচেতনতার বিভিন্ন প্রচারণামূলক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত মেহেরপুরে কোলড্রিংস ভেবে বিষপানে শিশুর মৃত্যু মেহেরপুরের ৩টি গ্রাম লকডাউন ঘোষণা, রাজশাহীগামী বিআরটিসি বাস বন্ধ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ১৪দিনের সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে ৫০ জনের করোনা শনাক্ত চুয়াডাঙ্গায় ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠিত ঝিনাইদহের শৈলকুপায় প্রতিবন্ধী সন্তান নিয়ে বিপাকে প্রতিবন্ধী পিতা, চান আর্থিক সহায়তা

ভালাইপুর মোড়ের সাপ্তাহিক পান হাট হঠাৎ করেই গোকুলখালীতে : প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ বিক্ষোভ

ষ্টাফ রিপোর্টার দৈনিক আমাদের চুয়াডাঙ্গা ডটকম

চুয়াডাঙ্গার ভালাইপুর মোড়ের সাপ্তাহিক পান হাটটি হঠাৎ করে নির্ধারিত স্থানে ক্রয় বিক্রয় না করে বে-আইনীভাবে গোকুলখালীতে  কেনা-বেচা করায় ফুসে ওঠেন ভালাইপুর মোড় বাজার দোকান মালিক সমিতি ও সাধারণ ব্যবসায়ীরা। নির্ধারিত স্থানেই পানের হাট বসাতে হবে এই দাবীতে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়ক ও ভালাইপুর মোড় আসমানখালী সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন ভালাইপুর মোড় বাজার দোকান মালিক সমিতি ও সাধারণ ব্যবসায়ীরা। পরে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ কারীদের সহায়তার বিষয়ে আশ্বস্থ করলে তারা বিক্ষোভ তুলে নেন।

জানা গেছে, (১১ জুলাই) শনিবার হঠাৎ করেই চুয়াডাঙ্গা সদরের ভালাইপুর মোড়ের সাপ্তাহিক পান হাটটি আলমডাঙ্গার চিৎলা ইউনিয়নের গোকুলখালী বাজারে গিয়ে কেনা-বেচা শুরু করেন। ওই সময় ভালাইপুর মোড় বাজার দোকান মালিক সমিতিকে না জানিয়ে বে-আইনীভাবে গোকুলখালীতে ক্রয় বিক্রয় করায় ফুসে ওঠেন ভালাইপুর মোড় বাজার দোকান মালিক সমিতি ও সাধারণ ব্যবসায়ীরা।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ভালাইপুর মোড়ের সকল ব্যবসায়ীরা ও ভালাইপুর মোড় বাজার দোকান মালিক সমিতি লোকজন তাদের সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে নির্ধারিত স্থানেই পানের হাট বসাতে হবে এই দাবীতে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়ক ও ভালাইপুর মোড় আসমানখালী সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন ভালাইপুর মোড় বাজার দোকান মালিক সমিতি ও সাধারণ ব্যবসায়ীরা। এ সময় চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

পরে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফখরুল আলম খাঁন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ভালাইপুর মোড়ে উপস্থিত হন। এ সময় ব্যবসায়ীদের সাথে আলোচনা করেন এবং এক উপজেলার হাট অন্য উপজেলার নিয়ে বসানোর জন্য যারা ষড়যন্ত্র করছে তদন্ত পূর্বক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া এবং আগামী সপ্তাহে পানের হাটটি যথাস্থানে বসানোর বিষয়ে আশ্বাস দিয়ে বিক্ষোভ কারীদের আশ্বস্ত করলে তারা বিক্ষোভ তুলে নিয়ে নিজ নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলেন।

দৈনিক আমাদের চুয়াডাঙ্গা ডটকম

দৈনিক আমাদের চুয়াডাঙ্গা ডটকম

বিক্ষোভ সমাবেশে ভালাইপুর মোড় বাজার কমিটির সভাপতি হাজী আমির হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ভালাইপুর বাজার দোকান মালিক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা আসাদুজ্জামান কবীর, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও  সাবেক চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান, আলুকদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ইসলাম উদ্দিন, চিৎলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক, খাদিমপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শাহাজালাল ব্যানা, ভালাইপুর মোড় বাজার দোকাল মালিক সমিতির উপদেষ্টা গোলাম মোস্তফা মুক্তার, ভালাইপুর মোড় বাজার দোকাল মালিক সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল মোতালেব ও সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান নান্টু।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সহ-সভাপতি ছানোয়ার হোসেন, নুর মোহাম্মদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী কালু, কামরুদ্দিন জাবেদ, এনামুল কবীর, শারিউর রহমান নান্টু, সাইফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আজিজ, অর্থ সম্পাদক জিল্লুর রহমান, প্রচার সম্পাদক মোফাজ্জেল হক, দপ্তর সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, ধর্ম সম্পাদক রবিউল ইসলাম, ক্রীড়া সম্পাদক মহিউদ্দীন ময়েন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল গফফার, কার্য নির্বাহী সদস্য টিপু সুলতান, মনিরুল ইসলাম মনি, ইলিয়াছ হোসেন, আকতার হোসেন, আব্দুল্লা  আল ফারুক, আব্দুল মজিদ প্রমুখ। বিক্ষোভ সভার  পরিচালনা করেন ভালাইপুর মোড় দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা শান্তি।

এ বিষয়ে ভালাইপুর মোড় দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হাজী আমির হোসেন বলেন, ভালাইপুর বাজারের উন্নয়ন দেখে একটি কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্র করে হাটটি অন্যত্র বসানোর চেষ্টা করছে,তাদের কেউ কেউ হাটের মধ্যে কাঁদা পানি বলে খোঁড়া যুক্তি দাড় করানোর চেষ্টা করছে, বিগত সময়ে এর থেকেও বেশী কাঁদা পানি থাকলেও ব্যবসায়ীরা অন্যত্র সরে যাইনি।কিন্ত আমরা যখন বাজারের নিরাপত্তা ও উন্নয়নের জন্য একটি পুলিশ ক্যাম্প স্থাপনের চেষ্টা করছি সেই সময়ে এই হাটটিকে নিয়ে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। যারা ষড়যন্ত্র করে হাটটি অন্যত্র সরানো বা ভালাইপুর  হাটের সুনাম নষ্ট করার চেষ্টা করছে আমরা সকল ব্যবসায়ীদের সাথে নিয়ে তা প্রতিহত করবো। আর প্রশাসনের কাছে আমাদের দাবী যারা জোরপূর্বক এধনের কাজ করছে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হোক।

এ বিষয়ে হাট ইজারাদার দেলোয়ার হোসেন দিপু বলেন, নিয়ম অনুযায়ী ভালাইপুর মোড়ের সাপ্তাহিক পান হাটের খাজনা তুলতে যেয়ে দেখি হাটে কোন পান ক্রয় বিক্রয় হচ্ছেনা, আমি তো হতবাক হয়ে পড়ি। নির্ধারিত হাটের খাজনা তুলতে না পেরে আমার বিশাল ক্ষতি, এ ক্ষতির দায়কে নেবে।

কি কারণে সাপ্তাহিক হাটে ব্যপারীরা বা বিক্রেতা আসে নি জানতে ব্যপারীদের কাছে ফোন দিলে তারা বলেন, ভালাইপুর মোড়ের নির্ধারিত পান কেনা স্থানে প্রচন্ড কাদা হওয়ায় আমরা গোকুলখালী কেনা-বেচা শুরু করেছি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT