মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৬:৫৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম
চুয়াডাঙ্গায় ২১ বীর মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী প্রদান ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্তে অবৈধভাবে প্রবেশের দায়ে দালালসহ আটক-২৮ ঝিনাইদহের মহেশপুরে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করলেন এমপি চঞ্চল কালীগঞ্জে মসজিদের ইমামদের আর্থিক অনুদান প্রদান ডিজিটাল বাংলাদেশের নাগরিক সেবায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি চুয়াডাঙ্গায় আলমসাধুর ধাক্কায় ৪ বছরের শিশুর মৃত্যু লক্ষ্যকোটি মানুষের ভালোবাসার মাঝে, সর্বোচ্চ মা’য়ের ভালোবাসা- আলী মুনছুর বাবু চুয়াডাঙ্গায় মুড়ি প্রস্ততকারী মেসার্স ইনসাফ ট্রেডার্সকে জরিমানা চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় বোরো ধান চাল সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন  শেখ নজরুল ইসলাম

সাজাপ্রাপ্ত খুনের আসামি ১৯ বছর ধরে চাকরি করছিলেন পুলিশে

Police officers stand outside the ransacked house of Rehana Fathima, who made an attempt to enter Sabarimala temple which traditionally bars the entry of women of menstrual age, in Kochi, India, October 19, 2018. REUTERS/Sivaram V - RC111C182080

সাজাপ্রাপ্ত খুনের আসামি পরিচয় গোপন করে ১৯ বছর ধরে চাকরি করছিলেন পুলিশ বাহিনীতে। ভারতের এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, উত্তরপ্রদেশের ওই সাজাপ্রাপ্ত আসামি আরেক রাজ্য উত্তরাখণ্ডে গিয়ে পুলিশে চাকরি নেয়। ১৯ বছর ধরে সেই চাকরি করে আসছিলেন তিনি।

১৯৯৭ সালে ২২ বছরের এক যুবককে হত্যা করেছিলেন উত্তরপ্রদেশের বরেলির অভয়পুরের বাসিন্দা মুকেশ কুমার। সেই ঘটনায় আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়।

পুলিশ জানায়, কনস্টেবলের দায়িত্বে থাকা মুকেশ ২০০১ সালে পুলিশ নিয়োগের পরীক্ষার সময় নিজেকে উত্তরাখণ্ডের উধম সিং নগরের বাসিন্দা বলে পরিচয় দেয়।

২০০০ সালে উত্তরপ্রদেশ থেকে আলাদা হয়ে নতুন রাজ্য হয় উত্তরাখণ্ড। রাজ্য পুলিশে ১৯ বছরের চাকরি জীবনে বিভিন্ন জেলায় কর্তব্যরত ছিলেন মুকেশ।

এদিকে তথ্য যাচাই করে দেখার পর মুকেশের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা দায়ের করা হয়েছে।  তদন্তের পর তার বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020 DailyAmaderChuadanga.com

 www.bdallbanglanewspaper.com

Design & Developed BY Creative Zoone IT